সাম্প্রতিক পোস্ট

সাতক্ষীরায় প্রাণ ও প্রকৃতি মেলায় প্রাণের উল্লাস

সাতক্ষীরায় প্রাণ ও প্রকৃতি মেলায় প্রাণের উল্লাস

::সাতক্ষীরা থেকে শেখ তানজির আহমেদ::
Satkhira nature fair paper 2আগুনাবিন্নী ধান। এই ধানের চাল ভিজিয়ে রাখলেই ভাত হয়ে যায়। প্রাকৃতিক দুর্যোগকালীন আগুনাবিন্নী ধানের ভাত খেয়েই জীবনধারণ করে উপকূলের মানুষ।

শুধু আগুনাবিন্নী নয়, এমনই শতাধিক প্রজাতির ধান, কুড়িয়ে পাওয়া অর্ধশতাধিক ভেষজ শাক-সবজি, সুন্দরবনের কেওড়ার আচার, মধুসহ পাঁচ শতাধিক জীবন-বৈচিত্র্য প্রদর্শিত হয় মেলায়। শিশু শিক্ষার্থী-শিক্ষক-অভিভাবকসহ সর্বস্তরের মানুষের পদচারণায় মেলা প্রাঙ্গণ হয়ে ওঠে উৎসবমূখর। এভাবেই বিপুল জনসমাগমে প্রাণের উল্লাসে সাতক্ষীরায় অনুষ্ঠিত হয়ে গেল প্রাণ ও প্রকৃতি মেলা ২০১৬।

আজ (বৃহস্পতিবার) সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের কৃষ্ণচূড়া চত্বরে গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক ও চ্যানেল আই যৌথভাবে এই মেলার আয়োজন করে। সকাল ৯টায় মেলার উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন-প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের প্রাণিরোগ নিরোধ প্রকল্পের পরিচালক ডা. শফিকুল ইসলাম, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুল ওদুদ, কৃষিসম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কাজী আব্দুল মান্নান, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. শশাঙ্গ ঘোষ, জেলা কৃষি প্রশিক্ষণ অফিসার জিএমএ গফুর, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক এম কামরুজ্জামান, বারসিক’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী শাহীন ইসলাম প্রমুখ। মেলায় সাতক্ষীরার প্রাণ ও প্রকৃতি সংশ্লিষ্ট পাচঁ শতাধিক জীবন-বৈচিত্র্য প্রদর্শন করা হয়।

[su_youtube_advanced url=”https://www.youtube.com/watch?v=_pJXnaS6OTs”]

মেলায় আগত শিশু শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ অনুভূতি প্রকাশ করে বলে, “মেলায় এসে আমার খুব ভালো লাগছে। এমন মেলা আমি আগে কখনো দেখিনি। মেলায় এসে বুঝলাম, আমরা আমাদের প্রকৃতির যেসব উপাদানগুলোকে অবহেলা করি যেগুলো খুবই উপকারী।” স্কুল শিক্ষক আমিনুর রহমান কাজল বলেন, “স্কুলের শিক্ষার্থীদের মেলায় নিয়ে এসেছি, এখানে আসলেই প্রাণের মেলা বসেছে।” এর আগে প্রেসক্লাব চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

happy wheels 2
%d bloggers like this: