সাম্প্রতিক পোস্ট

বরেন্দ্র অঞ্চলে ফণি

রাজশাহী থেকে মো. জাহিদ আলী

সপ্তাহের আলোচিত বিষয় সুপার সাইক্লোন ফণি’র প্রভাবে বরেন্দ্র অঞ্চলের কৃষক ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশংকা করলেও তেমন খুব নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি বলে জানিয়েছেন বরেন্দ্র অঞ্চলের কৃষকেরা। বরেন্দ্র অঞ্চলে এই মৌসুমে অর্থকারী দুইটি ফসল ধান ও আম। আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাসে এই এলাকার মানুষ যেভাবে ক্ষতির আশংকা করছিলেন, ফণি এই অঞ্চলে আঘাত না হানায় তা থেকে স্বস্তিতে ফিরেছে বরেন্দ্রের কৃষকের।

DSC03371
প্রলয়ংকারী ফেণী’র প্রবেশ পথ খুলনা ও সাতক্ষিরা অঞ্চল হয়ে টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর,নেত্রকোনা দিয়ে আসামে দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হলেও বরেন্দ্র অঞ্চলে এর প্রভাব তেমন পড়েনি। তবে দমকা হাওয়া ও বৃষ্টির ফলে ধান ক্ষেত্রে গাছ পড়ে গেলেও ফলনে সমস্যা হবেনা বলে জানান উচ্চ বরেন্দ্র গোদাগাড়ী এলাকার কৃষকরা। এপ্রসঙ্গে দেওপাড়া ইউপির কৃষক অনিল হাসদা বলেন, ‘গাছে ধান পরিপক্ক হয়ে গেছে,এখন ধান পড়ে গেলে সমস্যা হবে না। তবে ধান কাটতে পরিশ্রম হবে।’

DSC03377
কৃষক আতাবুর রহমান বলেন, ‘জমিতে পানি জমে থাকলে তা কেটে দিতে হবে। ধান যদি পানি সাথে বেশি দিন থাকে তাহলে সমস্যা হবে।’ কৃষি শ্রমিক দিপালী কিস্কু জানান, ধানের সাথে যদি কাদা লেগে থাকে তাহলে ধানের ক্ষতি হবে। ধান তাড়াতাড়ি কেটে নিতে হবে”।

DSC03384
এ প্রসঙ্গে দেওপাড়া নবাই বটতলা এলাকার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা অতনু সরকার জানান, বাতাসের কারণে ধান যেভাবে পড়ে গেছে তাতে ফলনে সমস্যা হবে না তবে ধান কাটার প্রক্রিয়া তাড়াতাড়ি শুরু করতে হবে। এটি করা সম্ভব না হলে কাদা পানিতে বেশিদিন থাকলে ফলনে ধান ফলনে কম হবে।

DSC03385
অন্যদিকে এই অঞ্চলের আম চাষীরা ফণি’র প্রভাবে যে ঝড়ের আশংকা করছিলেন তা হওয়া ও পরিমিত বৃষ্টি আম চাষে সহায়ক হবে বলে মনে করছেন অনেকে।

happy wheels 2
%d bloggers like this: