সাম্প্রতিক পোস্ট

সাতক্ষীরা বীজ ব্যাংক থেকে বীজ সহায়তা পেল ৪১ কৃষক

আসাদুল ইসলাম, সাতক্ষীরা থেকে

বীজ ব্যাংকের নাম শুনলে প্রথমে হাসি পেত। কিন্তু এখন বুঝতে পারছি এর গুরুত্ব কি। সদর উপজেলার তুজলপুরে গড়ে ওঠা সাতক্ষীরা বীজ ব্যাংক ও প্রস্তাবিত কৃষি হাসপাতালে সরিষার বীজ নিতে এসে এভাবেই অনুভূতি ব্যক্ত করেন সত্তরোর্দ্ধ বৃদ্ধ আয়ুব আলী। তিনি বলেন, “আগে বাড়িতেই বীজ রাখতাম। কিন্তু এখন আর রাখা হয় না। বাজার থেকে যে বীজ কিনি তা সব সময় ভালো হয় না। এজন্য নিজেদের মতো করে বীজ সংরক্ষণ করা জরুরি।”

photo-1
একইভাবে সাতক্ষীরা বীজ ব্যাংক ও প্রস্তাবিত কৃষি হাসপাতাল থেকে বীজ নিয়েছেন আবু বক্কর, আশুরা খাতুন, শাহিনা খাতুনসহ ৪১জন কৃষক। এদের মধ্যে কেউ নিয়েছেন সরিষার বীজ, কেউবা নিয়েছেন মুসুরীর ডালের বীজ।

তুজলপুর কৃষক ক্লাবের ব্যবস্থাপনা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিকের সহায়তায় গড়ে ওঠা সাতক্ষীরা বীজ ব্যাংক ও প্রস্তাবিত কৃষি হাসপাতালের সভাপতি ইয়ারব হোসেন জানান, কৃষকের বীজ কৃষকের অধিকার। কিন্তু আজ কৃষকের হাতে কোন বীজ নেই। বীজ বহুজাতিক কোম্পানির হাতে। তাই এই ব্যাংকে সাতক্ষীরা অঞ্চলের সব ধরনের বীজ সংরক্ষণ করা হচ্ছে। একই সাথে সংরক্ষণ করা হচ্ছে কৃষির ঐতিহ্যবাহী সব যন্ত্রপাতি। তিনি বলেন, “আমাদের লক্ষ্য বীজ সংরক্ষণে কৃষকদের উৎসাহিত করা।”
বীজ বণ্টন নিয়ে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রহমান জানান, এখান থেকে কৃষকদের বিনামূল্যে বীজ দেওয়া হয়। শর্ত হলো ফসল কর্তনের পর সমপরিমাণ বীজ ফেরত দিয়ে যেতে হবে।

happy wheels 2
%d bloggers like this: