সাম্প্রতিক পোস্ট

হাওরের প্রকৃতি বাঁচাতে ও সাজাতে এখনই সময়

হাওরের প্রকৃতি বাঁচাতে ও সাজাতে এখনই সময়

নেত্রকানো থেকে মো. অহিদুর রহমান
বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে মাসব্যাপী গাছ রোপণের আয়োজনের অংশ হিসেবে বারসিক ও মদন উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় নেত্রকোনা শিক্ষা সংস্কৃতি, পরিবেশ ও বৈচিত্র্য রক্ষা কমিটি, সম্মিলিত যুব সমাজ, উচিতপুর স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংগঠন, আব্দুল আজিজ খান সরকারি কলেজ, মদন যৌথভাবে সম্প্রতি (গত ১০ জুন) মহামারী করোনা পরিস্থিতির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কৃষ্ণচূড়া, সোনালো (বান্দরলরি), পলাশ, শিমুল, জারুল, গাছের চারা রোপণ করে রাস্তার দুপাশের সৌন্দর্য্য বাড়ানো ও দেশীয় প্রাণবৈচিত্র্যকে সংরক্ষণের এক কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠান করেন।
গাছ রোপণের এই উদ্যোগটি উদ্বোধন করেন নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মদন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান মাষ্টার (বীর মুক্তিযোদ্ধা), উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়ালীউল হাসান, উপজেলা কৃষিকর্মকর্তা নাজমুল হাসান, মদন ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান শেখ মানিক,ইউপি সদস্য বিদ্যা মিয়া, শিক্ষা সংস্কৃতি, পরিবেশ ও বৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক নাজমুল কবীর সরকার, আ: আজিজ খান, অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম, বারসিক’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী অহিদুর রহমান, সহযোগি সমন্বয়কারী শংকর ম্রং, নেত্রকোনা সম্মিলিত যুব সমাজের পার্থ প্রতিম সরকার, উচিতপুর স্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যাণ সংগঠনের মিজানুর রহমান, সুজন, মামুন, খাইয়ুম, জামাল, মোজাম্মেল, কামরুজ্জামান বাবু প্রমুখ।


কর্মসূচির উদ্বোধন করে উদ্বোধক নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম বলেন, ‘করোনা দুর্যোগকালিন সময়ে পরিবেশ প্রকৃতিকে প্রকৃত রাখতে দেশীয় ফুলের গাছ দিযে শোভা বর্ধনের যে কাজ তা দীর্ঘদিন ধরে মানুষের মনে আনন্দ দেবে, পর্যটক আসবে, দেশীয বিলুপ্ত গাছগুলো রক্ষা পাবে, পাখি বসবে, ফুল ফুটবে।’ তিনি আরও বলেন, বারসিক ও শিক্ষা, সংস্কৃতি পরিবেশ ও বৈচিত্র্য রক্ষা কমিটি ও স্বেচ্ছাসেবী যুব সংগঠন এবং মদন সরকারি কলেজকে এই কর্মসূচির আয়োজন করায় আমি তাদের শুভেচ্ছা জানাই।’
উদ্বোধন শেষে উচিতপুর ট্রলার ঘাট থেকে কৃষ্ণচূড়া ও বান্দরলরি গাছ রোপণ করে বৃক্ষ রোপণের সূচনা হয়।
উল্লেখ্য, তলার হাওর, গণেষের হাওর, জালিয়ার হাওরের পাশে অবস্থিত মদনের উচিতপুর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের এক অপরূপ লীলা। বর্ষায় হাওরের জলরাশি মনকে পাগল করে, শুকনায় বিস্তৃত হাওরজুড়ে ধান আর ধান, বর্ষায় উচিতপুর হয়ে উঠে যেন এক পর্যটন কেন্দ্র। এই সৌন্দর্যকে আরও সম্প্রারিত করার জন্য সম্প্রতি উচিতপুর থেকে মদন আব্দুল আজিজ খান সরকারি কলেজ পর্যন্ত তিন কিলোমিটার রাস্তার দুপাশে শোভা বর্ধনের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক।

happy wheels 2
%d bloggers like this: