সাম্প্রতিক পোস্ট

সবজি চাষ করে ভালো আছেন তাহমিনা বেগম

রাজশাহী থেকে রন্জু আকন্দ

বাড়ির উঠানে শাকসবজি চাষ করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়। পরিবারের পুষ্টি ও সবজি চাহিদা পূরণ করা যায়। এছাড়া প্রতিবেশিদের মাঝে বিতরণ করে ভালো সসর্ম্পও তৈরি করা যায়। অনেকে আবার উদ্বৃত্ত্ব সবজি বিক্রি করে বাড়তি আয়ও করেন।

সম্প্রতি নাচোল উপজেলা ফতেপুর ইউনিয়ন আঝইর গ্রামের তাহমিনা বেগম (২৭) নিজ উঠানে সবজি চাষ করেন বারসিক’র কাছ থেকে পরামর্শ ও বীজ গ্রহণ করেন। তাঁর পরিবারে ছেলে মেয়ে ও মাসহ ৫ জন সদস্য। তিনি বাড়ির ১০ শতক জমিতে সবজি চাষ করেন। এছাড়া নিজ ধানী জমিসহ অন্যের জমি বর্গা নিয়ে ধান চাষ করে তার স্বামী

তাহমিনা বেগম বাড়ির উঠানে ১০ ধরনের স্থানীয় জাতের শাকসবজি চাষ করে সংসারে সবজি চাহিদা পূরণ করেন। তহমিনা বলেন, বারসিক’র সাথে গত ২০১৮ সালে পরিচয় হওয়ার পর হামি (আমি) শাক সবজি চাষ শুরু করি। আগে হামি চাষ করা বুঝি নাই। ৪ বৎসর থেকে হামার পরিবারে বাগানের শাকসবজি খেয়েছি। খুব ভালো আছি। হামি প্রতিবেশিদেরও সবজি দেই। হামার শাক সবজি একেবারেই ভালো জেনে সবাই কিনতে আসে।’ তিনি আরও বলেন, ‘হামার (আমার) বাগান দেখে আশেপাশের অনেক পরিবার শাকসবজজি চাষ করছেন। হারগে (আমাদের) সম্পর্কও ভালো থাকে প্রতিবেশির সাথে।

happy wheels 2
%d bloggers like this: