সাম্প্রতিক পোস্ট

আমাদের লক্ষ্য কৃষকের অধিকার অর্জনে কৃষক আন্দোলন গড়ে তোলা

সিংগাইর মানিকগঞ্জ থেকে শাহীনুর রহমান
সরকারি কৃষি প্রোনদোনা বৃদ্ধি, মৌসুম ভিত্তিক বীজ, সরকারি কৃষি কার্ড, সরকারিভাবে ধান ক্রয়ের পর্যাপ্ত বরাদ্দ, কৃষি ঋণ সহজলভ্যকরণ, নুরানী গঙ্গা নদী খনন, কৃষি জমির জলাবদ্ধতা নিরসনে কৃষকের অধিকার অর্জনের লক্ষ্যে সিংগাইর উপজেলার বলধারা ইউনিয়নের কৃষি উন্নয়ন কমিটির বাৎসরিক কর্মপরিকল্পনার অগ্রগতি পর্যালোচনা ও আগামি দিনের করণীয় বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে সম্প্রতি।


বারসিক কর্মকর্তা শাহীনুর রহমানের সঞ্চালনায় আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বলধারা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত নারী সদস্য সেলিনা বেগম, বলধারা ইউনিয়ন কৃষি উন্নয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন, সদস্য লিপিকা সরকার, আব্দুল হালিম, সুভাষ মন্ডল, বারসিক আঞ্চলিক সমন্বয় কারি বিমল রায় ও কর্মসূচী সমন্বয়কারী শিমুল বিশ্বাস।


আলোচনায় সুভাষ মন্ডল বলেন, ‘সংগঠনের কাজ হচ্ছে নিজেদের মধ্যে ঐক্য তৈরি করে কৃষকের অধিকার অর্জনে কাজ করা। অনিয়ন্ত্রিত ভাবে কৃষি পণ্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়া কৃষি কাজের প্রতি কৃষকের অনাগ্রহ তৈরি হতে পারে। কৃষি উন্নয়ন কমিটির মাধ্যমেই কৃষি পণ্য সহজলভ্য করার আওয়াজ তুলতে হবে।’ বাৎসরিক কর্মপরিকল্পনার অগ্রগতি তুলে তুলে ধরে সাধারণ সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, ‘কৃষি উন্নয়ন কমিটির কাজ হচ্ছে কৃষকের ন্যায়সংগত দাবিগুলোকে সরকারি পর্যায়ে তুলে ধরা। কমিটির মাধ্যমে কৃষকে স্বার্থে কাজ করাই এই কমিটির লক্ষ হতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, নুরানী গঙ্গা নদীর সাথে বাংগালা, নবগ্রাম, ছোট কালিয়াকৈর, বড় কালিয়াকৈর, কাস্তা, নবগ্রাম সোলাই মগড়া গ্রামের কৃষকের জীবন জীবিকার সম্পর্ক। কিন্তু এই নদী ভরাট হয়ে যাওয়া অনেক কৃষির্কে জীবন জীবিকায় প্রভাব ফেলছে। আমরা কৃষি উন্নয়ন কমিটির মাধ্যমে নুরানী গঙ্গা নদী খননের জন্য জেলা প্রাশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডে দরখাস্ত দিতে চাই।’


সেলিনা বেগম বলেন, ‘আমাদের কৃষদের উন্নয়নের জন্য দেশব্যাপি কৃষকদের কোন সক্রিয় কৃষক সংগঠন নেই। অন্যান্য সংগঠন থাকলেও তা কখনই কৃষক দের স্বার্থে প্রতিনিধিত্ব করে না। কৃষকের অধিকার রক্ষায় বিভিন্ন কৃষক এলাকা গড়ে তুলতে হবে। তাদের সাথে পারষ্পারিক যোগাযোগ ও সমন্বয়ের মাধ্যমে কৃষক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আমাদের লক্ষ কৃষকের অধিকার অর্জনে কৃষক আন্দোলন গড়ে তোলা।’ সভাপতির বক্ত্যবে আব্দুল লতিফ বলেন, ‘কোম্পানিনির্ভর কষি ব্যবস্থা কৃষি উপর প্রভাব ফেলছে। কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণে মধ্যস্বঃত্বভোগীর দৌরাত্মের ফলে কৃষক উৎপাদন করে ফসলের প্রকৃত মূল্য পায় না। কৃষক অধিকার অর্জন করতে হলে কৃষক কৃষক শক্তিশালী নেটওয়ার্ক তৈরি করে কৃষক আন্দোলন জোরদার করতে হবে। একত্রিত কৃষক সংগঠনই কৃষকের অধিকার অর্জন করতে পারে।’

happy wheels 2
%d bloggers like this: