সাম্প্রতিক পোস্ট

সচেতনতাই পারে মাতৃমৃত্যুর হার কমাতে

মানিকগঞ্জ থেকে গাজী শাহাদত হোসেন ও শ্যাময়েল হাসদা
‘মা ও শিশুর জীবন বাঁচাতে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যেতে হবে’-এই প্রতিপাদ্য সামনে রেখে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উপলক্ষে প্রসূতি মা, শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা, ডায়াবেটিস ও রক্ত গ্রুপ পরীক্ষা এবং আলোচনা সভা সদর উপজেলার বেতিলা-মিতরা ইউনিয়নে অন্তর্গত রতনপুর রাজিব কমিউনিটি ক্লিনিক অনুষ্ঠিত হয়েছে। রতনপুর রাজিব কমিউনিটি ক্লিনিক ও জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম, মানিকগঞ্জ এর যৌথ আয়োজনে ও বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ ও বারসিক’র সহযোগিতায় দিবসটি উদযাপিত হয়।


প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন মানিকগঞ্জের সিভিল সার্জন ডাঃ মোয়াজ্জেম আলী খান, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ লুৎফর রহমান। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামের ডাঃ পংকজ কুমার মজুমদার। আলোচনা করেন বিশিষ্ট পরিবেশবাদী নেতা অ্যাডভোকেট দীপক কুমার ঘোষ, সমাজসেবক ইকবাল খান, সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ, রতনপুর রাজিব কমিউনিটি ক্লিনিক এর পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল বারেক, শিক্ষক মোতালেব হোসেন, ইউপি সদস্য মনিরুজ্জামান রনি, সংরক্ষিত সদস্য হামিদা আক্তার, অধ্যক্ষ (অবঃ) মনোয়ার হোসেন মনির, গাজী শাহদাত হোসেন বাদল। বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ এর প্রতিনিধি আসমা আক্তার ও রাজেশ অধিকারী।


প্রধান অতিথি বলেন, ‘প্রসূতি মা ও শিশুদের স্বাস্থ্যসেবার উপর অধিক গুরুত্ব দিতে হবে। কারণ শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। ঝুঁকিপূর্ণ গর্ববতী মায়ের ক্ষেত্রে জরুরি প্রসব সেবাকেন্দ্রে প্রসব করাতে হবে।’
বিশেষ অতিথি বলেন, ‘প্রসব পরবর্তী রক্তক্ষরণ, খিচুনী, গর্ভকালীন জটিলতা, ঝুকিপূর্ণ গর্ভাবস্থা ও পরিবারের অবহেলা মাতৃমৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ। তাই নিরাপদ মাতৃত্ব নিশ্চিত করতে নারীর পাশাপাশি পুরুষদেরও সচেতন হতে হবে।’
অনুষ্ঠানে ২০ জন গর্ভবতী মহিলা, ২৫জন মাকে স্বাস্থ্য সেবা এবং দুই শতাধিক নারী, পুরুষ, প্রবীণ ও শিক্ষার্থীদের ডায়াবেটিস এবং রক্ত চাপ ও গ্রুপ নির্ণয় কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: