সাম্প্রতিক পোস্ট

স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে চাই জবাবদিহিতা ও অংশগ্রহণ

মানিকগঞ্জ থেকে বিমল চন্দ্র রায়
‘স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে চাই জবাবদিহিতা ও অংশগ্রহণ’-এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ব্রাক ইউনিভাসির্টি স্কুল অব পাবলিক হেলথ ডিপার্টমেন্ট’র অধীন স্বাস্থ্যখাতে গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ’র সহায়তা এবং বারসিক’র উদ্যোগে মানিকগঞ্জ জেলার নাগরিক সমাজ ও যুব সমাজের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে সম্প্রতি পৃথক দু’টি অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


সভায় মানিকগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার মিলনায়তনে বিশিষ্ট অর্থপেডিক বিশেষজ্ঞ জেলা বিএমএ সভাপতি ডাঃ পংকজ কুমার মজুমদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পরিবেশবাদি ও সমাজসেবক এ্যাডভোকেট দীপক কুমার ঘোষ, জাতীয় মহিলা সংস্থা,মানিকগঞ্জ’র চেয়ারম্যান ও প্রধান শিক্ষক লক্ষী চ্যাট্যার্জি, সমাজসেবক মোঃ ইকবাল খান, প্রভাষক নাজমুন নাহার, স্বাস্থ্যকর্মী দেলোয়ারা বেগম প্রমুখ।


সভায় বক্তারা বলেন, ‘বাংলাদেশ এমডিজি অর্জনের পর এসডিজি অর্জনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছে। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতের বহু ধরনের সাফল্য আছে তেমনি আছে নানান দুর্বলতা। জাতীয় বাজেটের মাত্র ১ ভাগ বরাদ্দ স্বাস্থ্য খাতে। অসংখ্য সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান থাকলেও ভবন জরাজীর্ণ, ডাক্তার ও নার্স এবং প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির অভাব রয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশের স্বাস্থ্যনীতি খুবই দুর্বল। স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়ন করার জন্য তাই প্রয়োজন জবাবদিহিতা এবং নাগরিকের সক্রিয় অংশগ্রহণ। এছাড়া জলবায়ু, পরিবেশ, রাস্তাঘাট, গৃহনির্মাণ এসবও স্বাস্থ্যখাতের সাথে সংশ্লিষ্ট। উদ্যোগী হলে সমস্যা কিছুটা হলেও নিরসন সম্ভব।’


আলোচনা সভাশেষে ডাঃ পংকজ কুমার মজুমদারকে সভাপতি ও বিমল চন্দ্র রায়কে সাধারণ সম্পাদক করে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট মানিকগঞ্জ জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম এবং মিজানুর রহমান হৃদয়কে সমন্বকারী, ঋতু রবিদাস ও সুমন মোল্লাকে যুগ্ম সমন্বয়কারী নির্বাচিত কেে ২১ সদস্য বিশিষ্ট জেলা স্বাস্থ্য অধিকার যুব ফোরাম গঠন করা হয়।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: