সাম্প্রতিক পোস্ট

শরীর সুস্থ থাকলে মনও ভালো থাকে

হরিরামপুর, মানিকগঞ্জ  থেকে মুকতার হোসেন ও সত্যরঞ্জন সাহা।

“স্বাস্থ্য সকল সুখের সুখের মুল” যার শরীর সুস্থ তার মনও ভালো থাকে। হরিরামপুর মূলভুমি থেকে ১ ঘণ্টা পদ্মা নদী পাড়ি দিয়ে ৭ কিলোমিটার পায়ে হেটে পৌঁছতে হয় লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও যোগাযোগ ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে এই ইউনিয়নের মানুষগুলো। চর এলাকায় রাত্রে ডাক্তার না থাকায় জরুরি অসুস্থতার জন্য বিশেষ করে বিপাকে পড়তে হয় শিশু, নারী ও বয়স্ক মানুষের। সম্প্রতি বন্যা হওয়ার কারণে ইউনিয়নে শিশুসহ অন্যান্য মানুষের মধ্যে পাচঁড়া, পাতলা পায়খানা, সর্দি জ্বরসহ নানান রোগের লক্ষণ দেখা যায়। চরাঞ্চলের মানুষের এ সকল মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি থেকে রক্ষার জন্য হরিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় কৃষক সংগঠনের উদ্যোগে দিনব্যাপী লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নে গঙ্গাদরধি গ্রামে নিজাম মেম্বরের বাড়িতে জন্য স্বাস্থ্য ক্যাম্প আয়োজন করা হয়।

Exif_JPEG_420

উক্ত স্বাস্থ্য সেবা ক্যাম্পে চরাঞ্চালের লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নের গঙ্গাদরধি, পাটগ্রামচর, নটাখোলা, হরিহরদিয়া গ্রামের শিশু, নারী ও বয়স্ক ১৬০ জন মানুষকে চিকিৎসা পত্র ও প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র দিয়ে সহযোগিতা করা হয়। স্বাস্থ্য ক্যাম্প আয়োজনে সহযোগিতা করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ওষুধপত্র দিয়ে সহযোগিতা করে আজিসনগড় উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও লেছড়াগঞ্জ উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র। এই প্রসঙ্গে লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়ন ইউপি সদস্য নিজাম উদ্দিন বলেন, “চর এলাকায় হাসপাতাল নাই, জটিল অসুস্থ হলে বিশেষ করে গর্ভবর্তী নারী, শিশু নিয়ে বেশি সমস্যায় পড়তে হয়। রাতের বেলা হলে নৌকা পাওয়া যায় না। নৌকা পেলেও খরচ অনেক, যা সাধারণ মানুষের জন্য বিপদে পড়তে হয়।” চরাঞ্চরে জরুরি স্বাস্থ্য সেবা ক্যাম্প বিষয়ে ডা. আব্দুল মালেক খাঁন বলেন, “চর এলাকায় মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসতে হবে এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে সার্বিক সহযোগিতা করতে হবে।

স্বাস্থ্য ক্যাম্পে রোগীদের চিকিৎসাপত্র দেওয়ার পাশাপাশি এন্টিবায়োটিক, এন্টিহিষ্টামিন, খাবার স্যালাইন, ভিটামিন, ক্রিমিনাষক, আয়রনসহ মোট ১১ প্রকারের ওষুধ দেওয়া হয়।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: