সাম্প্রতিক পোস্ট

বহুত্ববাদ সমাজ বিনির্মাণে প্রয়োজন সৃষ্টিশীল ও দক্ষ তরুণ

রাজশাহী থেকে শহিদুল ইসলাম

‘বহুত্ববাদ সমাজ বিনির্মাণে সৃষ্টিশীল ও দক্ষ তারুণ্য” এই শ্লোগানে সম্প্রতি রাজশাহী মহানগরীর কুকিজার কনভেনশন সম্মেলন কক্ষে দিনব্যাপী ‘যুব সংগঠন ব্যবস্থাপনা ও সম্মাননা শীর্ষক সম্মেলন-২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০ ঘটিকায় জাতীয় সংগীতের মধ্যে দিয়ে সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন করেন বীরমুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডাঃ আব্দুল মান্নান। বারসিক’র আয়োজনে দিনব্যাপী উক্ত সম্মেলনে রাজশাহী তথা বরেন্দ্র অঞ্চলের ৩০টি যুব সংগঠনের ৬০ জন প্রতিনিধি তাঁদের সাংগঠনিক পরিচালনা এবং কার্যক্রম সম্পর্কে উপস্থাপন করেন।

BARCIK-1

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বীরমুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডাঃ আব্দুল মান্নান বলেন, ‘এই দেশের স্বাধীনতার সংগ্রামে তরুণরাই বেশি অবদান রেখেছেন। আমরা দেশ স্বাধীন করেছি ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের জন্য একটি শ্রদ্ধাশীল সমাজের জন্য। শোষণহীন সমাজের জন্য।’ তিনি আরো বলেন, ‘রাজশাহীর তরুণ সংগঠনগুলো এ বিষয়ে কাজ করছেন, একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আমার ভালো লাগছে যে, আমরা দিনে দিনে মুক্তির সমাজ, চেতনার সমাজ গঠনে কাজ করছি। এগিয়ে যাচ্ছি।’ তিনি এই কাজে তরুণদের আরো উৎসাহ প্রদান করেন।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে ছিলো বরেন্দ্র অঞ্চল তথা রাজশাহীর যুব সংগঠনগুলো তাঁদের সাংগঠনিক পরিচালনা এবং কার্যক্রম সম্পর্কে উপস্থাপন। গ্রাম ও শহরের সকল তরুণ সংগঠন তাদের সাংগঠনিক দিক, পরিচালনা পদ্ধতি এবং বরেন্দ্র অঞ্চল কেন্দ্রিক উন্নয়ন কার্যক্রমগুলো তুলে ধরেন। এতে অংশগ্রহণ করে বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্র, ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ, নব জাগরণ ফাইন্ডেশন, সূর্যকিরণ বাংলাদেশ, ইচ্ছে, তানোর উপজেলার মোহর স্বপ্ন আশার আলো, পক্ষী নিবাস ও প্রাণবৈচিত্র্য রক্ষা সোসাইটি, লিও ক্লাব ও মেট্রোপলিটন রাজশাহী, ০.৬জিআর জেড, সামাজিক স্কুল, ডেনটিস্ট ক্লাব-রাজশাহী, স্বপ্নপুরণ স্কুল, স্মাইল রাজশাহী, পবা উপজেলার তরুণ স্বপ্নযাত্রা, রিশিকুল তরুণ সংঘ, রিশিকুল স্বপ্নের ভেলা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় জাতিসংঘ ছায়া সংসদ, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কমিটি। এই উপস্থাপনের মধ্যে দিয়ে তরুণ সংগঠনগুলো অন্য সংগঠনের কাজ এবং পরিচালনা পদ্ধতিগুলো জানতে পেরেছে। অধিবেশনটি সঞ্চালনা করেন বারসিকের কর্মী তহুরা খাতুন লিলি।

BARCIK-5

সম্মেলনের তৃতীয় অধিবেশন ছিলো যুব সংগঠন ব্যবস্থাপনা এবং পরিচালনা পদ্ধতি বিষয়ক। এ বিষয়ে তরুণদের দক্ষতা উন্নয়ন, সংগঠন পরিচালনা পদ্ধতি, উন্নয়ন এবং তারুণ্যের নেতৃত্ব বিষয়ক আলোচনা ও পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টশন দেন বারসিক বরেন্দ্র অঞ্চল সমন্বয়কারী মোঃ শহিদুল ইসলাম। তরুণদের সংগঠন ও নেতৃত্বের দিক এবং বহুত্ববাদ সমাজ বির্নিমাণে তরুণদের করণীয় দিকগুলোও এতে মুক্ত আলোচনা হয়। তরুণরা তাদের বিভিন্ন সবলতা এবং উন্নয়নের দিকগুলো আলোচনা করেন। নিজেদের সাংগঠনিক উন্নয়নে বিভিন্ন দিকগুলো সহভাগিতা করেন।

বিকালে এবং শেষ অধিবেশনে তরুণ সংগঠনগুলোর বিগত দিনের কার্যক্রমের মূল্যায়ন এবং সমাজে এর প্রভাবের দিকগুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়। একই সাথে বিগত দিনে সমাজ, দেশ এবং নিজেদের উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় আটটি ক্যাটাগরিতে রাজশাহীর আটটি তরুণ সংগঠনকে বারসিক সম্মাননা প্রদান করেন। সম্মেলনের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (ডিসি) আবু আহাম্মদ আল মামুন। এতে সভা প্রধান হিসেবে ছিলেন বরেন্দ্র অঞ্চল জনসংগঠন সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও জাতীয় পরিবেশ পদক প্রাপ্ত কৃষক ইউসুফ আলী মোল্লা। প্রধান অতিথি এবং অতিথি মহোদয়সহ বারসিক রাজশাহী অঞ্চলের সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলামসহ সকলে সেরা কাজের জন্য যুব সংগঠনের নেতৃত্ববৃন্দেও হাতে সম্মাননা ও এ্যাওয়ার্ড তুলে দেন।

BARCIK-9

নিজের গ্রামে এবং এলাকায় পাখি সুরক্ষা, পাখি কলোনী তৈরীতে সহায়তা এবং বন্যপ্রাণী রক্ষায় অসামান্য অবদান রাখায় জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে বেস্ট বায়োডাইভারসিটি কনজারভেশন অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় নওগাঁ জেলার জীব বৈচিত্র্য সংরক্ষণ কমিটি।
বরেন্দ্র অঞ্চ০েলর আদিবাসী এবং প্রান্তিক মানুষের অধিকার নিয়ে কাজ করায় এবং বিশেষভাবে অবদান রাখায় বেস্ট মারজিনালাইজড পিপলস রাইটস অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় রাজশাহীর আদিবাসী ছাত্র পরিষদ ।

সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী এবং ব্যবস্থাপনার দিকগুলো উন্নত হওয়ায় বেস্ট অর্গানাইজেশন ম্যানেজমেন্ট অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় রাজশাহীর সূর্যকিরণ বাংলাদেশ। সংগঠনকে দিনে দিনে বিভিন্ন পর্যায়ে পরিচিত এবং এলাকার বেশি তরুণকে সংগঠনের সাথে সমৃক্ত করায় এবং তরুণ নেতৃত্ব তৈরীতে বিশেষভাবে অবদান রাখায় বেস্ট অর্গানাইজেশন লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র রক্ষা কেন্দ্র। রাজশাহী শহরের সুবিধাবঞ্চিত বস্তির শিশুদের শিক্ষা এবং অধিকার নিয়ে কাজ করে বিশেষভাবে অবদান রাখায় বেস্ট আন্ডারপ্রিভিলেজ্ড চাইল্ড রাইটস অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় নবজাগরণ ফাইন্ডেশন। স্থানীয় পরিস্থিতি ও সংকট বিবেচনায় জনস্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ প্রচারাভিযানে অবদান রাখায় বেস্ট ক্যাম্পেইন অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোসাল চেঞ্জ (ইয়্যাস)। তরুণরা নিজে গ্রামের মানুষের উপযোগী ও সমস্যা সমাধানে অবদান রাখায় বেস্ট ইনিসিয়েটিভ অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় মোহর স্বপ্ন আশার আলো যুব সংগঠন। রাজশাহী শহরের বস্তি পর্যায়ে প্রান্তিক মানুষের স্বাস্থ্য সেবা ও অধিকার নিয়ে ভূমিকা রাখায় দি বেস্ট হেল্থ রাইটস অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পায় রাজশাহীর তরুণ সংগঠন ডেনটিস্ট ক্লাব। ক্লিনসিটি গ্রীণসিটি এবং জ্বালানী সুরক্ষায় সাইকেল চালানোর অভ্যাস এবং তরুণদেরকে সাইকেল চালানোতে আগ্রহী করে তোলায় এবং বিশেষ অবদান রাখায় বেস্ট বাইসাক্লিস্ট গ্রæপ এ্যাওয়ার্ড পায় ০.৬ জিআরজেড সাইক্লিস্ট গ্রুপ ।

IMG_0341

রাজশাহী মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি) আবু আহাম্মদ আল মামুন সবসময় রাজশাহী মহানগরীতে তরুণদের বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী কাজে সহযোগীতা ও পরামর্শ দেয়ায় তাঁকে বারসিকের পক্ষে শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। শুভেচ্ছা ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘তরুণরা চাইলেই এই সামজটাকে আরো অনেক উন্নত করতে পারে। হিংসা বিদ্বেষ আরো থাকবে না।’ তিনি তরুণ সংগঠনগুলোকে দক্ষতা এবং উন্নয়ন দিকগুলো আরো ভালোভাবে বোঝার জন্য পরামর্শ দেন।

তরুণরাই গড়বে আগামীর দেশ। তাই বহুত্ববাদ সমাজ বির্নিমাণে প্রয়োজন সৃষ্টিশীল ও দক্ষ তারুণ্য। রাজশাহীতে দিনে দিনে আশাজাগানিয়া কিছু তরুণ তাদের সামাজ এবং নিজের উন্নয়নে কাজ করছে। নিজের এলাকার পরিবেশ, সংস্কৃতি এবং মানুষে মানুষে সৌহার্দ্য ও সম্পৃতি রক্ষায় তারা সংগঠন তৈরি করে অনেক তরুণকে এই কাজে সম্পৃক্ত করছে। তাই রাজশাহীর তরুণ সংগঠনসমূহের মধ্যে সমন্বয়, যোগাযোগ, সাংগঠনিক দক্ষতা এবং নিজ এলাকার পরিবেশ প্রতিবেশ ও উন্নয়ন বিষয়ে সমন্বয় করাই ছিলো সম্মেলনের মূল বিষয়। যাতে আগামীতে বৃহৎস্বার্থে নিজেরা সমন্বিতভাবে এলাকা এবং দেশের উন্নয়নে কাজ করতে পারে।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: