সাম্প্রতিক পোস্ট

আমরা করোনায় চরম ঝুঁকিতে আছি অথচ কেউ আমাদের দেখে না

সাতক্ষীরা থেকে গাজী আসাদ

বারসিক’র উদ্যোগে করোনা ভাইরাস সচেনতনতা ও শহরের নিম্ন আয়ের মানুষের টিকে থাকার কৌশল শিরোনামের একটি আলোচনা আজ সাতক্ষীরায় (১৬ সেপ্টেম্বর) সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বারসিক’র যুব সংগঠক ফজলুল হকের পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বারসিক’র সহকারী কর্মসূচি কর্মকর্তা আসাদুল ইসলাম। আলোচনা সভায় উপস্থিত সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘করোনা মহামরীতে সব থেকে ঝুঁকিতে রয়েছে বস্তিবাসীরা। শহরের নিম্ন আয়ের মানুষেরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তারা। স্বাস্থ্যগত ঝুঁকিতে রয়েছে তারা।’

নিম্ন আয়ের মানুষরাও করোনা যুদ্ধের সম্মুখসারীর যোদ্ধা। কারণ ঝুঁকি জেনেও তারা মানুষকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তাদের পাশে কেউ নেই।’

আলোচনা সভায় বস্তিবাসীদের পক্ষে হরিজন পল্লীর সর্দার চন্দন হেলা বলেন, ‘আমরা চরম অবহেলিত। আমাদের দেখার কেউ নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘করোনার ফলে নিম্ন আয়ের অধিকাংশ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। ঝুঁকি জেনেও আমরা কাজে যাই। কারণ পেট চালাতে হবে তো। আপনাদের কাছে অনুরোধ আমাদের কথা তুলে ধরুন। আমাদের কাজের সুযোগ করে দিন। সরকার সকলকে প্রনোদনা দিচ্ছে। অথচ সব থেকে কষ্টে থাকা বস্তিবাসীদের কোন প্রণোদনা নেই। আমাদের প্রণোদনা দিয়ে কাজ করা সুযোগ দিক।’

বস্তিবাসী জাহানারা খাতুন বলেন, ‘আমরা আজ কর্মহীন। করোনার কারণে মানুষ আমাদের কাজে নিতে চায় না। আমরা করোনায় চরম ঝুঁকিতে আছি অথচ কেউ আমাদের দেখে না। আমরা কাজে ফিরে ছেলেমেয়ে নিয়ে খেয়ে পড়ে বাঁচতে চায়।’

আলোচনা সভায় বস্তিবাসীদের স্বাস্থ্য ও করোনাকালীন সচেতনতা নিয়ে আলোচনা হয়। এতে সাতক্ষীরা শহরের রাজার বাগান ঋষিপাড়, কাজীপাড়াবস্তী, আতির বাগান বস্তি, ইটাগাছা বস্তি ও হরিজন পল্লীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।     

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: