সাম্প্রতিক পোস্ট

বিশ্ব খাদ্য দিবসে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনের আহবান

সিংগাইর, মানিকগঞ্জ থেকে শারমিন আক্তার

আজ ১৬ অক্টোবর বিশ্ব খাদ্য দিবস। সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে বিশ্ব খাদ্য দিবস। এবারে খাদ্য দিবসের প্রতিপাদ্য হিসাবে বলা হয়েছে, “আমাদের কর্ম আমাদের ভবিষ্যৎ, ২০৩০ সালের মধ্যে ক্ষুধামুক্ত  বিশ্ব গড়া সম্ভব”। এ কথার সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার বলধারা ইউনিয়নের নবগ্রাম কৃষক সংগঠন পালন করেছে বিশ^ খাদ্য দিবস।

oo
দিবসটি উপলক্ষে বলধারা ইউনিয়নের নবগ্রাম বন্ধন ঐক্য পরিষদ (কৃষক সংগঠন) ও বেসরকারি গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠান বারসিক’র যৌথ উদ্যোগে আয়োজন করে নিরাপদ খাদ্য প্রদর্শনী মেলা। মেলা উপলক্ষে জৈব শাক সবজি, দেশীয় বৈচিত্র্যময় বীজ সহ নানা ধরনের দেশীয় ফল উপস্থাপন করেন। এতে গ্রামের অধিকাংশ নারী ও পুরুষ কৃষক অংশগ্রহণ করেন। নিরাপদ খাদ্য প্রদর্শনী ছাড়াও সেখানে বিশ^ খাদ্য দিবসের প্রেক্ষাপট ও গুরুত্ব ওপর এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। নবগ্রাম বন্ধন ঐক্য পরিষদের সভাপতি নবু সরদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় কৃষক সংগঠনের সদস্য ছাড়াও অংশগ্রহণ করেন বারসকি কর্মকর্তা শিমুল বিশ^াস, শাহিনুর রহমান ও শারমিন আক্তার প্রমুখ।

000
নবগ্রাম কৃষক সংগঠনের সদস্যগণ মনে করছেন, বাংলাদেশের মানুষ এখন আর না খেয়ে থাকে না। তবে মানসম্মত খাবার খায় কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ আছে। তাই তারা  বিশ্ব খাদ্য দিবসে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনের উপর গুরুত্বারোপ করেছেন। অনুষ্ঠানে গ্রামের নারী ও পুরুষ মিলে নিরাপদ খাদ্য প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করেন। সেই সাথে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনের জন্য কিছু কর্ম পন্থা নির্ধারণ করেছেন সকলে মিলে। প্রাথমিকভাবে পারিবারিক নিরাপদ খাদ্যের চাহিদা পূরণের জন্য বাড়ির আঙ্গিনা এবং পালানি জমিতে দেশী জাতের সবজি জৈব উপায়ে চাষ, দেশী জাতের হাঁস মুরগির পারিবারিক খামার তৈরি এবং বৈচিত্র্যময় ফসল চাষের কথা ভাবছেন।

তারা এটাও মনে করেন বর্তমানে মানুষকে সুস্থ থাকতে হলে নিরাপদ খাদ্যের বিকল্প নেই। আর দেশের সকল মানুষের নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। এর জন্য প্রত্যেক কৃষককে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে কাজ করার আহবান জানান। তাই তারা দেশের সকল স্তরের কৃষকদের নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে উৎসাহিত করতে সরকারি উদ্যোগ ও সহযোগিতার দাবি জানান।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: