সাম্প্রতিক পোস্ট

মাসুদ বিশ্বাসের বাগান

ঘিওর, মানিকগঞ্জ থেকে সুবীর কুমার সরকার

‘শখের বসে শুরু হয় বসতবাড়িতে বাগান করা। ছোট বেলায় থেকেই বিভিন্ন গাছ দেখলে জানতে ইচ্ছা হতো এটা দিয়ে কি হয়, কি কাজে লাগে। এভাবেই শুরু হয় বাড়িতে বাগান করা। গাছের প্রতি যত্ন নিতে পারলে মনে তৃপ্তি পাই। সকাল বিকাল গাছের যত্ন নেয়া, গাছে পানি দেয়া, আগাছা পরিস্কার করা প্রতিদিন করতেই হবে। না করলে মনে হয় কি যেন বাকি রইলো।’

20181014_132819
উপরোক্ত বক্তব্যটি ঘিওর উপজেলার বানিয়াজুরী ইউনিয়নের শোলকুড়া গ্রামের তরুণ যুবক মাসুদ বিশ্বাসের (৪০)। মাসুদ বিশ্বাসের  মনে সব সময় নতুন কিছু তৈরি করা নিয়ে ভরপুর থাকে। আর এই কারণে তিনি বাড়ির দক্ষিণ দিকে তৈরি করেছেন একটি বাগান। তার বিশ্বাস, বাগান করলে দক্ষিণের বাতাসে বিভিন্ন ফুলের গন্ধে মন ভরে উঠবে। বাগানে তিনি ঔষুধিসহ নানান জাতের গাছ দিয়ে সাজিয়েছেন।

মাসুদ বিশ^াসের বাগানে ওষুধি গাছ আছে বিধায় অনেকে ঠান্ডা ও কাশির জন্য বাগান থেকে ওষুধি গাছগুলো সংগ্রহ করেন। বাসক ও তুলসী ঠান্ডা ও স্বর্দি কাশির জন্য উপকারী। গ্রামের নারীরা তাই মাসুদ বিশ্বাসের  বাগানে বাসক পাতা ও তুলসীর পাতা সংগ্রহ করেন। নানান জাতের ওষুধি গাছসহ অনেকগুলো কাঠ ও ফলদ গাছ রয়েছে মাসুদ বিশ^াসের বাগানে। তার গ্রামসহ আশপাশের গ্রামের অনেকে আসে তার বাগান পরিদর্শন করতে এবং প্রয়োজনীয় চারা সংগ্রহ করতে।

20181014_132822
মাসুদ বিশ্বাসের  বাড়িতে তার স্ত্রী ও চতুর্থ শ্রেণী পড়ুয়া একটি ছেলে রয়েছে। তার স্ত্রীও বাগান পরিচর্যায় তাকে সহযোগিতা করে বলে তিনি জানান। প্রকৃতি প্রেমিক বাবা দ্বারা তার ছেলে বেশ অনুপ্রাণীত। তাই তো স্কুলের অংকন পরীক্ষায় মাসুদ বিশ^াসের ছেলে একটি ঔষুধি গাছ ও একটি ফলের গাছ অংকন করে। মাসুদ বিশ্বাসের  ছেলের কাছ থেকে তার সহপাঠীরা এই অল্প বয়সেই বিভিন্ন ধরনের ওষুধি ও ফলদ গাছ সম্পর্কে জেনেছে।

বাগান করার পাশাপাশি মাসুদ বিশ্বাস দেশী মুরগি ও টার্কি পালন করেন। তিনি মুরগির ডিম থেকে বাচ্চা ফোটানোর জন্য হারিকেনের মাধ্যমে স্তর করে তাপ দিয়ে বাচ্চা ফুটাচ্ছেন। এটা তার তার মেধা ও বুদ্ধি দিয়ে করেছেন। এছাড়া তিনি তার বাড়িতে কেচো কম্পোস্ট করার চিন্তভাবনাও করছেন।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: