সাম্প্রতিক পোস্ট

রাজশাহীতে তরুণ সংগঠন ফোরামের যাত্রা

বরেন্দ্র অঞ্চল প্রতিনিধি

“ গাহি সাম্যের গান–
যেখানে আসিয়া একহয়ে গেছে সব বাধা-ব্যবধান ”
– কবি কাজী নজরুল ইসলাম ।

বঞ্চিত মানুষের অধিকার, সামাজিক অত্যাচার, অনাচারের বিরুদ্ধে লড়বে তরুণ, জাগবে দেশ সাম্যের অধিকারে। প্রাণ প্রকৃতি, নিজের চারপাশের সকল প্রাণের নিরাপদ খাদ্য, পরিবেশে বাঁচবে সবাই। শুধু মানুষের মধ্যে মানুষের সাম্য নয়, মানুষের সাম্যের মধ্যে দিয়ে পৃথিবীর অন্যান্য প্রাণবৈচিত্র্য ও প্রাকৃতিক পরিবেশ তার সাম্যের বা বেঁচে থাকার সমান অধিকার পাবে। সামগ্রিক এই সাম্যের পরিবেশ সৃষ্টি এবং অধিকার আদায়ে তরুণ সবসময় অগ্রগামি। তরুণরাই পারে বৈষম্য বিলোপ করতে, তরুণরাই পারে সকল প্রাণের সম অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে।

IMG_0429

এরকমই রাজশাহীর অগ্রগামী কিছু তরুণ রাজশাহী শহর এলাকা তথা সিটি কর্পোরেশনে গত ২০১৫ সাল থেকে নিজের সমাজের অবহেলিত সুবিধাবঞ্চিত মানুষ এবং প্রাণ প্রকৃতির উন্নয়নে কাজ করছেন। দিনে দিনে অগ্রগামী তরুণদের অনুপ্রেরণা ও কাজের অভিজ্ঞতায় সংগঠিত হয়েছে। দক্ষ সংগঠনগুলোর অনুপ্রেরণায় তৈরি হয়েছে আরো বেশ কিছু তরুণ সংগঠন। বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের গুণে ও দক্ষতায় পরিপূর্ণ এই তরুণ সংগঠনগুলো কাজ করছে নানা বিষয় নিয়ে। বারসিক তাঁদের কাজগুলোতে সহায়ক হিসেবে ভূমিকা পালন করছে।

IMG_0447 - Copy

বর্তমান এরকম তরুণদের মধ্যে সমন্বয় সাধন এবং নিজেদের কাজ ও দক্ষতাগুলো অন্য সংগঠনের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে একই সাথে নিজের সমাজের উন্নয়নে সমন্বিতভাবে কাজ করতে তরুণ সংগঠন ফোরমের প্রত্যাশা করেন। রাজশাহীতে এরকম সমমনা নতুন এবং পুরাতন সংগঠনগুলো হলো: বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্র, নবজাগরণ ফাইন্ডেশন, ইয়্যুথ এ্যাকশন ফর সোসাল চেঞ্জ (ইয়্যাস), বিআইইএস (বাংলাদেশ ইননোভেটিভ এডুকেশন সোসাইটি), সূর্যকিরণ বাংলাদেশ, সামাজিক স্কুল, স্বপ্ন পুরণ, রোটারেক্ট ক্লাব অব রাজশাহী, বরেন্দ্র শিক্ষা বিকাশ কেন্দ্র, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ, বুক ব্যাংক, সেভ দা নেচার এন্ড লাইফ সোসাইট ইয়্যুথ ফোরাম উল্লেখ্যযোগ্য।

IMG_0450 - Copy

উক্ত সংগঠনগুলোর সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের অংশগ্রহণে গতকাল বারসিক রাজশাহী রিসোর্স সেন্টার সেমিনার কক্ষে সমন্বয় সভার আয়োজন করা হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে রাজশাহী তরুণ সংগঠন ফোরাম গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। একই সাথে নিজেদের কাজগুলো নিয়মিত সমন্বয়ের জন্যে প্রতি তিনমাস পর পর একটি করে সাধারণ সভার আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সিদ্ধন্ত হয় এই ফোরামের কোন কমিটি থাকবে না। প্রত্যেক সংগঠনের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক এই ফোরামের সিদ্ধান্ত প্রক্রিয়ায় ভোট প্রদান করতে পারবেন। প্রতিটি সভায় সকলের সম্মতিতে একজন সভাপতি নির্বাচন করা হবে। তিনি সভা পরিচালনা করবেন। বারসিক সবসময় এই ফেরাম পরিচালনা এবং সমন্বয়ে সার্বিক সহযোগিতা করবে। সভায় সকলের সম্মতিতে বারসিক’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলামকে সভাপতি নির্বাচন করা হয়।

সভায় তরুণ সংগঠনগুলোর প্রতিনিধি তাঁদের বিগত দিনের কাজসহ আগামীর পরিকল্পনা উপস্থাপন করেন। একই সাথে বরেন্দ্র অঞ্চলের মানুষসহ সকল প্রাণের নিরাপদ জীবন, বাসস্থান, অধিকার নিয়ে কাজ করার অঙ্গীকার করেন।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: