সাম্প্রতিক পোস্ট

দেশী মাছ সংরক্ষক কার্তিক চন্দ্র মন্ডল পুরুষ্কারে ভূষিত হলেন

সাতক্ষীরার শ্যামনগর থেকে বাবলু জোয়ারদার

জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৯ সন্মাননা অর্জন করেন মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের জেলেখালী গ্রামের কার্তিক চন্দ্র মন্ডল। তিনি জেলেখালী আইপিএম কৃষক ক্লাবের একজন সক্রিয় সদস্য। এক সময় স্কুলের শিক্ষকতা করতেন। শিক্ষকতা থেকে অবসর নেওয়ার পর তিনি কৃষিকাজ তথা এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রাখার জন্য সরকারি সহায়তায় এলাকায় কৃষি ক্লাব গড়ে তোলার জন্য অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। কৃষি ক্লাব গঠন হওয়ার পর থেকে ক্লাব থেকে কৃষকদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয় তাঁর নেতৃত্বে।

2

কৃষি ক্লাব গঠন হওয়ার আগে থেকে কার্তিক চন্দ্র মন্ডল স্থানীয় মাছ সংরক্ষণ করতেন। প্রথমে তিনি ছোট পরিসরে কাজটি করতেন আস্তে আস্তে তিনি একবিঘা পরিমাণ জমিতে স্থানীয় জাতের মাছ সংরক্ষণে কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু ২০০৯ সালে প্রলয়ংকারী আইলা সবকিছু ধ্বংস করে দিয়ে যায়। কার্তিক চন্দ্র মন্ডল হাল ছেড়ে দেওয়ার লোক নন। আইলার পর লবণ পানি সরে যাওয়ার পর তিনি আবার পুকুরে স্থানীয় জাতের মাছ সংরক্ষণের কাজ শুরু করেন। তিনি শুধু সংরক্ষণ করেন না নিজের পরিবারের সদস্যদের খাওয়া বাদে বাজারেও বিক্রিও করেন।

3

কার্তিক চন্দ্র মন্ডল কৈ, শিং, মাগুর, বোয়াল, শোল, স্বরপুটি, পুটি, টেংরা, মেীরল্যা, চ্যাং, ফলুই, রুই, কাতলা, বাইনতোড়া, লাঠা, চ্যাং, জিয়াল, মৃগেল, কালবাউশ, বালে, চিংড়িসহ প্রায় ২২ ধরনের মাছ সংরক্ষণ করেন। কার্তিক চন্দ্র মন্ডল তার এ কাজের পুরুষ্কার লাভ করেন সম্প্রতি। স্থানীয় জাতের মাছ সংরক্ষণের জন্য তিনি জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৯ সন্মাননা পুরস্কারে ভূষিত হন।

1

সন্মাননা পুরস্কার পাওয়ার পর কার্তিক চন্দ্র মন্ডল বলেন, ‘আমার উদ্যোগ আরো বেড়ে যাবে, অন্যরা উৎসাহিত হবে। আমি মাছ খাওয়ার থেকে সংরক্ষণ করতে ভালোবাসি। আমি আমার ক্লাবের সদস্য ও গ্রামের মানুষদেরকে এই কাজে উৎসাহিত করবো। আমাদের সবার উচিত যার যার অবস্থান থেকে স্থানীয় জাতের মাছ সংরক্ষণ করা।’

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: