সাম্প্রতিক পোস্ট

আমরা সবাই কৃষক হবো

নেত্রকোনা থেকে খাদিজা আক্তার লিটা

‘আমরা সবাই কৃষক হবো’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে নেত্রকোনা জেলা আমতলা ইউনিয়নের গাছগড়িয়া যুব সংগঠন ও দেওপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে সম্প্রতি আয়োজন করা হয়েছে দরিদ্র কৃষককে ধান উত্তোলনে সহায়তা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে শুভ উদ্ভোধন করেন স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক শিল্পী রানী কর। অনুষ্ঠানে অংশ নেন গাছগড়িয়া যুব সংগঠনের সদস্য, গাছগড়িয়া কৃষক সংগঠনের সদস্যগন, স্কুলের সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণ। নতুন প্রজন্মকে কৃষি কাজে আগ্রহ বৃদ্ধি, পরিবার ও সমাজে কৃষকের অবদান সম্পর্কে ধারনা প্রধানের লক্ষ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

IMG_20191121_115010
অনুষ্ঠানের উদ্বোধনের পর সকল শিক্ষার্থী দলে দলে কাঁচি হাতে মাঠে চলে যায়। সকলে মিলে গ্রামের একজন দরিদ্র কৃষকের ৪০ শতাংশ জমির পাকা ধান কেটে দেয় মাত্র এক ঘণ্টায়। এই প্রসঙ্গে অনুষ্ঠানে স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক শিল্পী রানী বলেন, ‘আজকের অনুষ্ঠানের আয়োজকদের ধন্যবাদ, আমি প্রথমবার এ ধরনের অনুষ্ঠান দেখলাম। এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা আমাদের কৃষি প্রধান দেশে কৃষকের অবদান সম্পর্কে শুধু ধারণা নয়, তাদের কষ্টকে অনুভব করতে পারবে।’

IMG_20191121_115559
সহকারী শিক্ষক রুহুল আমীন বলেন, ‘ধান উত্তোলন থেকে ধান রোপণের পিছনে কি পরিমাণ শ্রম একজন কৃষককে দিতে হয় তা বুঝতে হলে যারা কখনও মাঠে যায়নি তাদেরকে একদিনের জন্য হলেও মাঠে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন। আজকের এ অনুষ্ঠানের পর অনেক শিক্ষার্থী তার পরিবারে যারা কৃষি কাজ করেন, তাদের কাজটি যে সহজ নয় তা বুঝতে পারবে, সেই সাথে সহায়তার আগ্রহ বাড়বে।’

অনুষ্ঠানের আয়োজক স্কুল কেবিনেটের সদস্য বায়জিত বলেন, ‘আমাদের মধ্যে অনেক শিক্ষার্থী জীবনে প্রথমবার কাঁচি হাতে নিয়েছে, আমাদের বাবা মা কৃষির সাথে জড়িত থাকলেও আমরা কখনো মাঠের কাজে যায়নি। তাই এ কাজটি বাস্তব অভিজ্ঞতা ছিল না। আজকের পরে আমরা কৃষি ফসল উত্তোলনের বিষয়টি যেমন বুঝতে পারছি সেই সাথে একজন কৃষকের সন্তান হিসেবে নিজেই গর্ববোধ করছি।’

IMG_20191121_115139
নতুন প্রজন্মকে কৃষিতে আগ্রহ বৃদ্ধির মাধ্যমে একটি সুন্দর স্বনির্ভশীল বাংলাদেশ তৈরির লক্ষ্যে নেত্রকোনা বিভিন্ন এলাকার যুব সংগঠনগুলো গ্রাম পর্যায়ে গ্রাম সভা, মত বিনিময় সভার আয়োজন করে থাকে। স্কুল পর্যায়ে স্কুল কেবিনেট তৈরি, ক্লাসে বক্তৃতামালায় অংশ নেয় গ্রামের সম্পদ ব্যক্তিগণ। এ কাজে সার্বিক সহায়ক হিসেবে কাজ করে বারসিক। শিক্ষার্থীদের সামনে একটি স্বপ্নের বাংলাদেশ তৈরি করার জন্য সকলে মিলে কাজ করা। নবীন ও প্রবীণের গুণের সংযোগ স্থাপন বিষয়ে আলোচনার পাশাপাশি উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করেও একজন শিক্ষার্থী কিভাবে একজন ভালো কৃষক হয়ে উঠতে পারে, কলম হাতে কৃষিতে রাখতে পারে অবদান বাংলার ইত্যাদি বিষয়ে চলে ক্লাস পর্যায়ে আলোচনা আয়োজন করে।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: