সাম্প্রতিক পোস্ট

দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তনই নারীর উন্নয়নের চাবিকাঠি

বিউটি সরকার, সিংগাইর, মানিকগঞ্জ
সমাজে নারী ও পুরুষের সমতা তৈরি করা ও বৈষম্য কমিয়ে আনার উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে সম্পতি নয়াবাড়ী আর্দশগ্রাম কৃষক সংগঠনের উদ্যোগে ও বারসিক’র সহায়তায় জেন্ডার ও উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নয়াবাড়ী আর্দশগ্রাম কৃষক সংগঠনের সভাপতি কমলা বেগমের সভাপতিত্বে ও বারসিক সহযোগী কর্মসূচি কর্মকর্তা বিউটি সরকারের সঞ্চালনায় উক্ত প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন বারসিক প্রোগ্রাম অফিসার শিমুল বিশ্বাস।


প্রশিক্ষণের শুরুতে জেন্ডারের ধারনা ও সমাজে নারী পুরুষের বৈষম্য, বাল্যবিয়ে রোধ ও মেয়েদের লেখাপড়ার পাশাপাশি দক্ষ করে তোলা নিয়ে উন্মুক্ত আলোচনা হয়। আলোচনার শুরুতে সংগঠনের সদস্য সাফিয়া বেগম বলেন, ‘সমাজে নারী ও পুরুষের বৈষম্য দূর করতে পারলে নারীর উন্নয়ন সম্ভব। দু’হাত দিয়ে কাজ করলে কাজটি যেমন তাড়াতাড়ি ও ভালো হবে তেমনি নারী ও পুরুষ দু’জনে মিলে কাজ করলে সংসারের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি সংসারের অভাব ও দূর হবে।’ একই সংগঠনের সহসভাপতি নুরজাহান বেগম নারীর উন্নয়ন প্রসঙ্গে বলেন, ‘সমাজের, পরিবারের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে হবে এবং ছেলেমেয়েদের প্রতি সমান দৃষ্টি দিয়ে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েদেরও লেখাপড়া শেখাতে হবে।’


প্রশিক্ষণে সহায়ক শিমুল বিশ্বাস জেন্ডার প্রসঙ্গে ধারনা প্রদান করেন। তিনি বলেন, ‘জেন্ডার হল নারী ও পুরুষের সামাজিক পরিচয়, যা সমাজ কর্তৃক সৃষ্ট এবং তা পরিবর্তন করা যায়। সমাজের নারী ও পুরুষের বৈষম্য দূর করে মেয়েদের লেখাপড়া শিখিয়ে মানসিকভাবে তৈরি করার পাশাপাশি দক্ষ করে তুলতে হবে যেন পরনির্ভরশীল না হয়।’
প্রশিক্ষণ শেষে প্রত্যেত অংশগ্রহণকারীকে লেবুর চারা প্রদান করা হয়।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: