সাম্প্রতিক পোস্ট

রাজশাহীর প্রান্তিক মানুষের জ্বালানি অধিকার ও পরিবেশ সুরক্ষার দাবি

রাজশাহী থেকে জিনাতুন্নেছা ও শামীউল আলীম শাওন

আজ (২৫ অক্টোবর) রাজশাহী সাধারণ গ্রন্থাগারের গিরিশ চন্দ্র সেন হল রুমে গ্রীনসিটি রাজশাহীর সমস্যা ও সম্ভাবনা শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বক্তারা গ্রীনসিটি রাজশাহীর প্রান্তিক মানুষের জ্বালানি অধিকার প্রতিষ্ঠা ও পরিবেশ সুরক্ষার দাবি জানান। বারসিক এবং বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্রের যৌথ আয়োজনে উক্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে সহায়ক ভূমিকা পালন করে জনপ্রিয় জাতীয় দৈনিক কালের কন্ঠ, অনলাইন ভিত্তিক নিউজ পোর্টাল সিল্কসিটি নিউজ ও বারসিক নিউজ।

Fine

মতবিনিময় সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে অংশগ্রহণ করেন নদী ও পরিবেশ গবেষক মোহা. মাহবুব সিদ্দিক। রাজশাহী শহরের বর্তমান প্রান্তিক মানুষের জ্বালানি সমস্যা ও করণীয় দিকগুলো নিয়ে মাঠ পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদন তুলে ধরেন বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্রের সাহিত্য সম্পাদক জিনাত আরা। মাঠ পর্যবেক্ষণের আলোকে বর্তমান রাজশাহীর বৃক্ষ কমে যাওয়া এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনাসহ সবুজ শহর রাজশাহীর বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনাগুলো তুলে ধরেন সংগঠনটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শামীউল আলীম শাওন। বারসিক এর বরেন্দ্র অঞ্চল সমন্বয়কারি মোঃ শহিদুল ইসলাম শহর পর্যায়ে নবায়নযোগ্য জ্বালানি সমস্যা ও সম্ভাবনার দিকগুলো তুলে ধরেন।

IMG_3540
মতবিনিমিয় সভায় প্রধান আলোচক জনাব মাহবুব সিদ্দিক বলেন, “রাজশাহী শহরের একসময় ১২টি বড় পয়েন্ট দিয়ে পানি নেমে যেতো, কিন্তু দিনে দিনে নালা এবং খালগুলো বন্ধ করে দেয়ায় অল্প বৃষ্টি হলেই শহরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়।” তিনি শহরের পানি চলাচলের জন্যে খাল এবং নালাগুলো দখলমুক্ত এবং সংস্কারের পরামর্শ দেন।

বারসিক’র শহীদুল ইসলাম বলেন, “রাজশাহী শহর পর্যায়ে দীর্ঘ তিনবছরে প্রান্তিক মানুষের নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে প্রবেশাধিকার এবং জ্বালানির অপচয়রোধে পরিবেশ সুরক্ষায় বারসিক জনগোষ্ঠীর সহায়ক হিসেবে কাজ করছে। শহর পর্যায়ে দিনে দিনে প্রান্তিক মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। বস্তিবাসীগণ জ্বালানি, গ্যাস এবং বিদ্যুতের সুবিধা থেকে বঞ্চিত। নগরের বাসিন্দা বা নাগরিক হয়েও তারা বিভিন্ন নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত।” তিনি আরো বলেন, “প্রাপ্ত গবেষণায় দেখা যায় নগরীর বস্তিবাসী অনিরাপদ জ্বালানি ব্যবহার করার ফলে বিভিন্ন রোগবালাই এর শিকার হচ্ছে। আবার পানির পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা না থাকায় এবং বিদ্যুতের সুব্যবস্থা অভাবে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। বিশেষ করে নারী ও শিশুরা এই অবস্থার শিকার হচ্ছে বেশি।

রাজশাহীর তরুণ শামীউল আলীম শাওন বলেন, “সম্প্রতিকালে আমাদের শহরে বড় বড় বৃক্ষগুলো কর্তন করা হচ্ছে। এটা যেমন আমদের গ্রীনসিটির জন্যে হুমকি স্বরূপ, তেমনি এই শহরের পরিবেশসহ অন্যান্য প্রাণীর জন্যে সংকট বয়ে নিয়ে আসবে। এর ফলে পাখি ও শহরের সবুজময়তা কমে যাচ্ছে।” তিনি বরেন্দ্র অঞ্চলের বড়বড় বৃক্ষগুলো নির্বাচন করে প্রতœতাত্তিক নিদর্শন হিসেবে সংরক্ষণের দাবি জানান।

IMG_3550

মতবিনিময়ে অংশগ্রহণকারীগণ শহরের বর্জব্যবস্থাপনার উন্নয়ন, পুকুর সংস্কার ও রক্ষাসহ, তরুণদের জন্যে খেলার মাঠগুলো উপযোগী করার দাবি জানান। একই সাথে শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে পানি চলাচলের পথগুলো সংস্কার এবং মুক্ত করার পরামর্শ দেন। এছাড়া মতবিনিময়ে সকলের বক্তব্য এবং পরামর্শ সমেত বিইসিডিপির তরুণ সমন্বয়ক ও সভাপতি জাওয়াদ আহমেদ নিম্লিলিখিত ৫ দফা দাবি অচিরেই বাস্তবায়নের পদক্ষেপ গ্রহণের জন্যে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রতি আহবান করেন।

 ১. নগরের প্রান্তিক মানুষ তথা বস্তিবাসীদের পানি, বিদ্যুৎ গ্যাসের নিশ্চয়তার ব্যবস্থা করতে হবে।
২. জলাবদ্ধতা নিরসনে নগরের পানি চলাচলের পথগুলো সংস্কার করতে হবে।
৩. নগরে ধুলাবালি কমানো এবং চলাচলের রাস্তা ঠিক করার ব্যবস্থা করতে হবে।
৪. নগরের বড় বড় গাছগুলো রক্ষায় কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।
৫. খেলাধুলার জন্যে শহরের প্রত্যেকটি খেলার মাঠ উন্মুক্ত করতে হবে, একই সাথে খেলার উপযোগী করতে হবে।

উক্ত মতবিনিময়ে অংশগ্রহণ করেন পদ্মা রেডিওর তরুণ ও সিনিউর রিপোর্টার যুবরাজ ফয়সাল, সিল্কসিটি নিউজ এর সিনিউর রিপোর্টার অমিত হাসান, বিইসিডিপিসি এর সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল আহমেদসহ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ। মতবিনিময় অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্র’র (বিইসিডিপিসি) সভাপতি জাওয়াদ আহমেদ রাফি।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: