সাম্প্রতিক পোস্ট

জৈবকৃষি চর্চা করি, নিরাপদ শস্য ঘরে তুলি

তানোর, রাজশাহী থেকে শহিদুল ইসলাম শহিদ
রাজশাহী গোদাগাড়ী উপজেলার রিশিকুল ইউনিয়নের রিশিকুল গ্রামে পরিবেশ সম্মত কৃষি বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় কৃষক কৃষানিরা ‘জৈবকৃষি চর্চা করি, নিরাপদ শস্য ঘরে তুলি’ বিষয়কে ধারণ করে নিরাপদ শস্য উৎপাদনের লক্ষ্যে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করেন। স্থানীয় কৃষকদের জৈব কৃষিদক্ষতা বৃদ্ধির জন্য মেডিকেল পাড়া নারী উন্নয়ন সংগঠন ও বারসিক উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করেন। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় কৃষকরা তিনটি বিষয় হাতে কমলে শিক্ষা লাভ করেন। যথা: কুইক কম্পোষ্ট, বোর্দা মিকচার ও তরল সার তৈরি করা। এখন থেকে কৃষকরা স্থানীয় রিসোর্স ও উপকরণ ব্যবহার করে জৈব প্রযুক্তিতে পরিবেশ সম্মত এই সার গুলো নিজেরাই তৈরি করে ব্যবহার করতে পারবেন।

IMG_20151002_104231কুইক কম্পোষ্ট জমির জৈব শক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। বোর্দামিকচার ফসলের ব্যাকটেরিয়া জনিত কারণে পচন ধরলে তা প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে থাকে। তরল সার ফসলের নাইট্রোজেন অভাব পূরণ করবে।

IMG_20151002_105504উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মশালা বিষয় রিশিকুল নারী উন্নয়ন সংগঠনের সদস্য রসুনা বেগম বলেন, “আমাদের হাতের নাগালে পাওয়া এসব উপকরণ দিয়ে যে সার তৈরি করা যায় তা কোন দিন ভেবে দেখিনি। আমরা এখন থেকে নিজেরা তৈরি করে ফসলে ব্যবহার করবো এবং তা নিজেরাই পরীক্ষা করে দেখতে পারবো আমাদের ফসলে কি ধরণের উপকার করছে।” সংগঠনের সভা প্রধান আদরী খাতুন বলেন, “আমরা অধিক মাত্রায় রাসায়নিক সার ব্যবহার করে থাকি। প্রতি বছর জমিতে সারের পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে প্রতিনিয়ত ফসল উৎপাদনের জন্য খরচের পরিমাণ দিন দিন বেড়েই চলেছে। তাই মাটির শক্তি বৃদ্ধির জন্য জৈব সারের বিকল্প নেই।

উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় রিশিকুল স্বপ্নের ভেলা সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আরজেদ আলী, রিশিকুল মেডিকেল পাড়া নারী সংগঠনের সভাপ্রধান আদরী খাতুন, সাধারণ সম্পাদক লাভলী খাতুন সহ সংগঠনের সদস্য, কৃষক ও যুবকরা উপস্থিত ছিলেন। উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মশালটি সঞ্চালনা করেন বারসিক প্রতিনিধি অমৃত কুমার সরকার।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: