সাম্প্রতিক পোস্ট

পারস্পারিক অভিজ্ঞতা বিনিময়ের মাধ্যমে পারস্পারিক ঐক্য তৈরি হয়

শ্যামনগর, সাতক্ষীরা থেকে বিশ্বজিৎ মন্ডল

আজ ২৭ সেপ্টেম্বর শ্যামনগর উপজেলার কৃষাণ-কৃষাণীরা নিজেদের মধ্যে পারস্পারিক জ্ঞান, অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা এবং সম্পদ বিনিময়ের ধারাবাহিকতায় বারসিক শ্যামনগর রিসোর্স সেনটারের উদ্যোগে কৃষক-কৃষক অভিজ্ঞতা বিনিময় সফরের অংশ হিসাবে উপজেলার কাশিমাড়ি ইউনিয়নে কাঠালবাড়ি, ভুরুলিয়া ইউনিয়নের কাচড়াহাটি ও তেঘরিয়া, পদ্মপুকুর ইউনিয়নের পাখিমারা, কৈখালী ইউনিয়নের জয়খালী গ্রামের ১৫ জন অভিজ্ঞ কৃষাণী বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের দাঁতিনাখালী গ্রামের বনজীবী নারী সংগঠন ও বাদাবন সম্ভারের কার্যকক্রম পরিদর্শনে আসেন। পরিদর্শনের পদির্শন দল বাদাবন সম্ভার ও দাঁতিনাখালী নারী সংগঠনের বাদাবনের তৈরিকৃত আচার, চকলেট, হাতের বিভিন্ন কাজ (প্যাকেট তৈরি, আরির কাজ, বিভিন্ন ধরনের সোপিচ), মোমের তৈরি উপকরণ, দর্জি কাজ ও বিভিন্ন ধরনের পুরুস্কার ও সম্মাননা স্মারক পরিদর্শন করেন।

pic-1
পরিদর্শন শেষে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা বনজীবী নারী সংগঠনের সভানেত্রী ও বনজীবী সংগঠনের কাছে তারা কিভাবে সংগঠন করলেন, কিভাবে বিভিন্ন ধরনের বনজ সমাগ্রী দিয়ে পণ্য তৈরি করছেন, সংগঠনের কতজন সদস্য, বর্তমান কিকি কাজ হচ্ছে, সংগঠন নিবন্ধন কিনা, নিবন্ধন করে কি লাভ হয়েছে এসব বিষয় জানতে চান।

pic-2
বনজীবী নারীরা একে একে তাদের প্রশ্নের উত্তর দেন। অংশগ্রহণকারী কৃষাণীদের মধ্যে সেলিনা, রেহানা, আফরোজারা বলেন, ‘বনজীবী নারীরা বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করছে এবং তা বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখছেন। বনজীবীদের মতো আমরা অন্য পেশার মানুষেরা এগিয়ে যেতে চাই। আজকের এ সফরের মাধ্যমে আমরা সকল পেশার মধ্যে এক আত্মীয়তার সম্পর্ক তৈরি হলো। আমরা প্রত্যেক পেশার মানুষ প্রত্যেক পেশাকে গুরুত্ব দেবো। এভাবে পারস্পারিক অভিজ্ঞতা বিনিময় সফরের মাধ্যমে পারস্পারিক ঐক্য তৈরি হবে এবং সংগঠিত হতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: