সাম্প্রতিক পোস্ট

বিষ বৃক্ষ তামাক চাষ থেকে কৃষকদের বিরত রাখুন.

আব্দুর রাজ্জাক,  মানিকগঞ্জ

মানব দেহ ও পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর এ ফসল থেকে কৃষকদের বিরত রাখতে  নানা সময় সরকারি ও বেসরকারি পদক্ষেপ নেয়া হলেও কাজের কাজ তেমন হচ্ছে না । বর্ষার পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথেই ভালো দাম পাওয়ার কারণে মানিকগঞ্জের জেলার বহু চাষি দীর্ঘদিন যাবত আগ্রহের সাথে এ তামাক চাষ করে যাচ্ছেন ।

জেলার সদর উপজেলা,সাটুরিয়া,ঘিওর ও দৌলতপুরে তামাক চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। কৃষি প্রধান এ অঞ্চলে বিভিন্ন  ফসল চাষ হলেও তামাক চাষে যেন মুখ ফেরাতে পারছেন না তারা । কারণ অন্য ফসলের তুলনায় তামাকে কম পুজিতে বেশি লাভ । তামাক চাষে প্রতি বিঘায় মাত্র খরচ হয় আট থেকে দশ হাজার টাকা, প্রতি বিঘায় লাভ হয় ত্রিশ থেকে পয়ত্রিশ হাজার টাকা। যেখানে তামাক প্রস্তুতকারী কোম্পানিগুলোর লোভনীয় প্রস্তাবে সারা দিচ্ছেন তারা। এ ছাড়াও তামাকের পাতা থেকে শুরু করে বিক্রি হয় সব কিছু।

IMG_20181121_142536

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, জেলায় গত বছর তামাক চাষ হয়েছিল ২০৪০ হেক্টর। গেল বছরের তুলনায় এবার কিছুটা কমে চাষ হয়েছে প্রায় ১৭০০ হেক্টর। চাষ কম হলেও লোভনীয় এ বিশ বৃক্ষ চাষে দিন দিন স্বাস্থ্য ও পরিবেশ হুমকির মুখে পড়ছে।

বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতারা জানান, লাভজনক অন্য ফসল কৃষকদের দিয়ে তামাক চাষ বন্ধের আহবান সকলের। তবে এ বিষয়ে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক হাবিবুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন প্রোগ্রামের মাধ্যমে সভা করে করে কৃষকদের তামাক চাষে নিরুৎসাহীত করে যাচ্ছি এবং কৃষকদের অন্যান্য লাভজনক ফসলের মধ্যে সবজি,মসলা জাতীয় ফসল উৎপাদনে  উদ্বুদ্ধ  করা হচ্ছে ।’ গেল বছরের তুলনায় এবার তামাক চাষ কিছুটা কম হয়েছে বলে তিনি জানান ।

 

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: