সাম্প্রতিক পোস্ট

বর্ণভেদ ও বৈষম্য বজায় রেখে নারীর ক্ষমতায়ন সম্ভব নয়

মানিকগঞ্জ থেকে মো. নজরুল ইসলাম ও ইস্মিতা আক্তার

সারা দুনিয়াতেই যখন জাতিতে ধর্মে বর্ণে একদিকে নিপীড়ন শোষণ, বঞ্চনা, জাতিগত ও ধর্মবর্ণে ভেদাভেদ চলছে অন্যদিকে জাতিসংঘ ঘোষিত ফরমায়েশী দিবসগুলো পালিত হচ্ছে বাগাড়ম্বরভাবে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন প্রতিপাদ্য নিয়ে এই দিবস পালন করছে। সরকারের এর পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠনগুলোও এই দিবস পালন করছে।

IMG_20190321_163745
বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক দীর্ঘদিন ধরে সমাজের পিছিয়ে পড়া প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে জাতি, ধর্ম, বর্ণভেদের মতাদর্শ এবং বৈষম্যমূলক সমাজের বিপরীতে সামাজিক ন্যায্যতা নিশ্চিতের লক্ষ্যে কাজ করে আসছে।
এরই ধারাবাহিকতায় মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর পৌরসভাধীন বিনোদপুর ঋষিপাড়া নারী উন্নয়ন সমিতি ও বারসিক’র যৌথ আয়োজনে স্থানীয় সকল ধর্ম, বর্ণ মানুষের অংশগ্রহণে নারী ও পুরুষের সামাজিক ন্যায্যতা নিশ্চিতের লক্ষ্যে সম্প্রতি নারীর প্রবেশাধিকারমূলক গ্রামীণ খেলাধুলা ও সংলাপের আয়োজন করা হয়।

IMG_20190321_164937
সংলাপ ও পুরুস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে জবা মুণি দাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিংগাইর পৌরসভার সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ও প্যানেল চেয়ারম্যান পারভিন সুলতানা। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাধু চিন্ময় মুণী দাস, বারসিক কৃষিবিদ মাসুদুর রহমান, প্রোগ্রাম অফিসার মো. নজরুল ইসলাম, বারসিক মাঠ সহায়ক ইস্মিতা ও আছিয়া আক্তার প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ‘গ্রামীণ এই লোকায়ত খেলাধুলার মাধ্যমে নারীর প্রবেশাধিকার নিশ্চিত হবে বলে আমরা মনে করি। এভাবে বালিশ, পুকুর খেলা, সুই সুতা খেলা, মোমবাতি খেলাসহ বিভিন্ন খেলার মাধ্যমে আমরা হিন্দু মুসলিম ভাই বোনেরা একত্রিত হয়েছি। আমরা সমাজে একসাথে সম্মিলিতভাবে থাকতে চাই এবং রােেষ্ট্রর কাছে সামাজিক ন্যায্যতা নিশ্চিতের জন্য চাপ সৃষ্টি করে যাব।’

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: