সাম্প্রতিক পোস্ট

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল ও আমাদের গাছপালা

সাতক্ষীরা শ্যামনগর থেকে বাবলু জোয়ারদার

সিডর, আইলার মত প্রাকৃতিক বির্পযয় কাটিতে উঠতে না উঠতে আবার সব কিছু এলোমেলো করে দিয়েছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। ঘূর্ণিঝড় বুলবল দক্ষিণ-পশ্চিম শ্যামনগর উপজেলায় আঘাত হানে শনিবার আনুমানিক রাত ৩ টার দিকে। বুলবুল পরবর্তী শ্যামনগর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা পর্যবেক্ষণ ও স্থানীয় মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, কোন মানুষের প্রাণহানি ঘটেনি তবে নীরবে অনেক প্রাণ দিয়ে মানুষকে রক্ষা করেছে গাছপালা। শ্যামনগর উপজেলায় এবারের ঝড়ে রাস্তা ও বসতবাড়ির প্রায় লক্ষাধিক ছোট বড় গাছপালা ভেঙেছে, উপড়ে গেছে। গাছ পড়ে বেশ কিছু ঘর ভেঙেছে।

1
গাছ আমাদের পরিবেশ, জীববৈচিত্র্য এবং মানুষের জীবন বাঁচাতে সাহায্য করে। গাছ শুধু প্রকৃতির শোভাবর্ধন করে না। মানুষের অস্তিত্ব রক্ষায় পরিবেশ তৈরিতে গাছের তুলনা অতুলনীয়। গাছপালা না থাকলে পরিবেশ হত গরম এবং বসবাসের উপযোগি হত না। তাই আমাদের ইচ্ছামত গাছপালা কাটা ঠিক নয়। সিডর, আইলা, ফণি ও বুলবুলের মত মত প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করে গাছপালা।

এই প্রসঙ্গে বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের ভামিয়া গ্রামের বনায়ন কমিটির সভাপতি মাখন লাল আউলিয়া বলেন, ‘আমরা সামাজিক বনবিভাগ ও বারসিক’র সহায়তায় রাস্তার দুইপাশে প্রায় ৭ কিলোমিটার বনায়ন করেছিলাম। গাছগুলো আস্তে আস্তে বেড়ে উঠার মূহুর্তে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। বুলবুলের কারণে অনেক গাছ নষ্ট হয়ে গেছে। তারপরও আমরা গাছগুলো আবার ঠিক করছি। যে গাছগলো নষ্ট হয়ে গেছে সেগুলো আবার নতুন করে লাগাবো। কারণ গাছ আমাদের জীবন বাচায়, সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি ও জীববৈচিত্র্য রক্ষা করে।’

3
গাছপালা পড়ে ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তেমন সংখ্যা খুব বেশী নয়। গাছ পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের বিলআটি গ্রামের ভোলানাথ মন্ডল বলেন, ‘বুলবুলের কারণে গাছপালা পড়ে আমার একমাত্র বসত ঘর ভেঙেছে। আমি সর্বশান্ত হয়েছি। আমি গরিব মানুষ দিন এন দিন খাই, ঝড়ের কারণে আমার পরিবার খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছি। তারপরও গাছ আমাদের জীবন বাঁচায় তাই আমাদের গাছ লাগাতে হবে।’ মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের কুলতলি গ্রামের গৌতম সরদারের কাছে গাছ পড়ে কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের এলাকার মাটি লবণাক্ত। যে কারণে মাটির শক্তি কমেছে। তাছাড়া গাছের শিকড় গভীরে যায় না, গাছের গোড়ার চারিদিকে জালের মত থাকে। সে কারণে একটু ঝড় বাতাস হলে গাছ পড়ে যায়। এই ঝড় এত দীর্ঘ সময় ধরে হয়েছে যে, গাছপালা আর দাঁড়িয়ে থাকতে পারেনি গাছ ভেঙে গেছে উপড়ে গেছে।’

বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের বুড়িগোয়ালিনী গ্রামের প্রশান্ত কুমার মাঝী বলেন, ‘১৯৮৮ সালের ঝড়ের থেকে এই ঝড়ে বেশি গাছপালা ভেঙে ও উপড়ে যায়। আমি আমার এই জীবনে এত সময় ধরে ঝড় দেখিনি। তাছাড়া ঝড়ের দুইদিন আগে বৃষ্টি হওয়ার কারণে মাটি নরম হওয়ার ফলে গাছপালা এবার বেশি নষ্ট হয়েছে।’

5
সামাজিক বনবিভাগ কর্মকর্তা পিরামিন ইসহাকের কাছে বুলবুলের কারণে রাস্তার পাশে ও বসতভিটার গাছ পড়ে যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের মাটি লবণাক্ত। এই লবণাক্ততার কারণে মাটির কনাগুলোর শক্তি কম হওয়ার ফলে মাটি ক্ষয় হয়। এছাড়াও প্রতিবছর বৃষ্টি হওয়ার কারণে বসতভিটা ও রাস্তার পাশে যে মাটি ক্ষয় হয় তা পূরণ করা হয় না। ফলে প্রায় গাছের গোড়ার মাটি ক্ষয় হয়ে শিকড় বেরিয়ে এসেছে। এছাড়া বুলবুলের আগে দুইদিন যাবৎ বৃষ্টি হওয়ার ফলে গাছগুলোর মূল শিকড় এবং মাটির সংযোগটা দুর্বল হয়ে যায় এবং সেই সাথে ঝড়টা দীর্ঘসময় ধরে অতিবাহিত হওয়ার কারণে এই এলাকায় বেশির ভাগ গাছপালা ভেঙে যায় এবং উপড়ে যায়।’

2
গাছপালা মানুষের অনেকভাবে উপকার করে। লেখার কাগজ, রাবার, কাঠ, ফুল, ফল, ছায়া ও অক্সিজেন সবই গাছ থেকে আমরা পাই। গাছ আমাদের যে উপকার করে তা বলে শেষ করা যাবে না। গাছপালা কম হওয়ার কারণে প্রকৃতির আচরণ বদলে গেছে। পরিবেশ প্রকৃতি বাঁচাতে গাছ লাগানোর বিকল্প নেই। গাছ আমাদের বন্ধু। মানুষসহ প্রাণীর বাঁচার জন্য গাছের প্রতি সহনশীল হওয়া প্রয়োজন। তাই আসুন আমরা বেশি করে গাছপালা লাগাই, পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখি।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: