সাম্প্রতিক পোস্ট

বীজ বিনিময়ের মাধ্যমে কৃষকদের পারস্পারিক সম্পর্ক উন্নয়ন হয়

রাজশাহী থেকে রন্জু আকন্দ

দেশীয় শাকসবজি চাষের পরিমাণ বাড়ানো, নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনসহ গ্রামের মানুষকে বিশেষ করে নারীদের কৃষিকাজকে উৎসাহিত করার জন্য বারসিক’র উদ্যোগে রাজশাহী চারটি গ্রামের কৃষাণ-কৃষাণীদের মাঝে সম্প্রতি দেশীয় প্রজাতির শাকসবজি বীজ বিতরণ করা হয়েছে।

এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রাজশাহীর খড়িবোনা, জোরপুকুর, আনোখাদিঘি এবং আঝরই গ্রামের ১৩০টি দরিদ্রদের মাঝে এ বীজ বিতরণ করা হয়। বিতরণ করা বীজের মধ্যে রয়েছে লাউ, শিম,  মিষ্টিকুমড়া এবং0 বরবটি সবজি।

বীজ বিতরণের পাশাপাশি উপস্থিত কৃষাণ-কৃষাণীদেরকে জৈববালাই নাশক ব্যাবহার বিষয়ে হাতে কলেমে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন বারসিক’র কৃষি গবেষক রন্জু আকন্দ। তিনি কৃষকের মাঝে থেকে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন গ্রামের কৃষকদেরকে দেশি জাতের সবজি বীজ সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও পরস্পরের সাথে বিনিময় করার জন্য তাদেরকে উৎসাহিত করেন।

এই প্রসঙ্গে আনোখাঁদিঘি গ্রামের কৃষক ঐক্যের সভাপতি মো. টমাছ বলেন,  ‘এ ধরনের কাজকে সাধুবাদ জানাই। বীজ বিনিময়ের মাধ্যেমে কৃষকরা পরস্পরের সাথে সম্পর্ক উন্নয়ন যেমন করতে পারেন ঠিক তেমনি নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনের হারও বৃদ্ধি লাভ করতে পারে। কারণ কৃষকরা অনুধাবন করতে পেরেছেন যে, দেশীয় শস্য-ফসল উৎপাদনে বিষ ও রাসায়নিক সারের বেশি প্রয়োজন হয় না ‘ তিনি জানান, এই বীজ বিনিময়ের মাধ্যমে  এখন পর্যন্ত ৫০টি পরিবার তাদের দেওয়া বীজ বপন করে বিভিন্ন সবজি উৎপাদন করছেন।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: