সাম্প্রতিক পোস্ট

রাজশাহী নগরে ‘করোনামুক্ত বস্তি চাই’ শীর্ষক প্রচারাভিযান অনুষ্ঠিত

রাজশাহী থেকে তহুরা খাতুন লিলি
বাংলাদেশের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে সবুজ শহর খ্যাত রাজশাহী মহানগরীতে উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক ও নামোভদ্রা বাস্তুহারা সার্বিক উন্নয়ন সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে করোনামুক্ত বস্তিচাই শীর্ষক প্রচারাভিযান সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে। নামোভদ্রা বস্তি বাসীদের অংশগ্রহণে উক্ত সচেতনতামূলক প্রচারাভিযানে প্রায় একশত মানুষ করোনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক আলোচজনায় অংশগ্রহণ করেন।

সরকারের প্রদেয় স্বাস্থ্য বিধি এবং মাস্ক পড়ার নিয়ম কানুন নিয়ে আলোচনা তুলে ধরেন বারসিক বরেন্দ্র অঞ্চল সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম। আলোচনায় করোনা মোকাবেলায় শরীর ও স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে নিরাপদ খাবারসহ খাদ্য নিরাপত্তা এবং বস্তিতে বা ঘরের পাশে ফাকা জায়গায় পুষ্টি ব্যাংক গড়ে তোলার বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়। বস্তিবাসী নারীরা তাদের ঝুপড়ি ঘরের পাশে বীজ সহায়তা নিয়ে বিভিন্ন জাতে সবজি চাষ শুরু করেছেন।

উল্লেখ্য যে, বস্তি শুমারী ২০১৪ অনুযায়ী দেখা যায়, রাজশাহীতে ছোট বড় মিলে বস্তির সংখ্যা ১০৪টি। মোট খানার সংখ্যা ১০২০২, যার জনসংখ্যা ৩৯০৭৭ জন। রাজশাহী শহরে প্রায় ৮০.৫৫% খানা সরকারি জমিতে ঝুপড়ি বা ছোট টিনের ঘরে বসবাস করে। বস্তিতে অধিকাংশ পরিবারই এককক্ষ বিশিষ্ট টিনের কাঁচা ঘর বা রুম ভাড়া নিয়ে চার বা পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট পরিবারের সবাইকে নিয়ে ঘিঞ্জি পরিবেশে বসবাস করেন। খাওয়া দাওয়া, কাপড় চোপড় রাখা, রান্নার জ¦ালানি রাখা, পরিবারের জিনিসপত্র রাখা সবই ঐ একটি ঘরের মধ্যেই করতে হয়। অনেক সময় পরিস্থিতির কারণেই অনেক সময় স্বাস্থ্যবিধি মানাও তাদের পক্ষে সম্ভব হয়ে উঠেনা।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: