সাম্প্রতিক পোস্ট

হরিরামপুর চরাঞ্চলের নারীদের অগ্রযাত্রা

হরিরামপুর, মানিকগঞ্জ থেকে মুকতার হোসেন
আরজিনা বেগম বাড়ি মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলার লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নে পাটগ্রামচরে বাড়ি। গ্রামের নারীদের সংগঠিত করে সরকারি ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, ইউনিয়ন পরিষদ উপজেলা পরিষদ সহ গ্রামের মানুষের বিভিন্ন কাজে সাড়া দেন। তাই সকলের কাছে আরজিনা খুব পরিচিতি মুখ। নিজ গ্রামে ২৫ জন নারী নিয়ে তিনি উত্তর পাটগ্রামচর নারী উন্নয়ন সংগঠন নামে একটি জনসংগঠন গড়ে তোলেন এবং তিনি সভাপতির দা্িয়ত্ব পালন করেন। চরাঞ্চলের নারীদের অধিকার আদায়ে তাদের পারিবারিক ও সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি, নারীদের পছন্দের মর্যাদা দেওয়া, পরিরারের সিদ্ধান্ত নেওয়াসহ নারীদের অগ্রযাত্রায় তিনি অনেক ভূমিকা রাখেন। এলাকাবাসীর অনুপ্রেরণা ও ভালোবাসায় তিনি ২০২২ সালে স্থানীয় সরকারের ইউপি নির্বাচনে মহিলা সংরক্ষিত আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিত্ াকরেন। ছয় ভোটের ব্যবধানে তিনি পরাজিত হন। আরজিনা বেগম বলেন, ‘হারজিত থাকবেই, পরিবার সমাজ এবং এলাকার মানুষ আমাকে উৎসাহ অনুপ্রেরণা দিয়েছি এটাই আমার বড় পাওয়া। বিপদে আপদে মানুষের পাশে থেকে আমি সব সময় নারীদের এগিয়ে নিতে কাজ করব।’


মানিকগঞ্জ হরিরামপুর চরাঞ্চল লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নে নারীরা তাদের অধিকার আদায়ে মাঠে নেমেছে। নারীদের কাজের সমমজুরী, পারিবারিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে অংশগ্রহণ, সামাজিক কাজে সম্পৃক্ত বাড়ানো, প্রবেশাধিকার ও অধিকার আদায়ের লক্ষে গ্রাম পর্যায়ে আলোচনা সভা, সেমিনার, মানববন্ধন, র‌্যালিসহ বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি চলমান রেখেছে।


২০১১ সাল থেকে বারসিক হরিরামপুর চরাঞ্চলের নারীদের অগ্রযাত্রা সকল কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহায়তা করে আসছে। নারীর প্রতি বৈশম্য দূরীকরণ, নারীদের কাজের সমমুজরি, পারিবারিক মর্যাদা বৃদ্ধি, বাল্য বিবাহ রোধ, নারীদের পছন্দের গুরুত্ব, সামাজিক কার্যক্রম অংশগ্রহণসহ বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়ন করে আসছে। আর এ জন্য উত্তর পাটগ্রামচর নারী উন্নয়ন সংগঠন, পদ্মা নারী উন্নয়ন সংগঠন, বসন্তপুর কিশোরী সংগঠনসহ কয়েকটি নারী সংগঠন গড়ে তুলেছেন। ইতিমধ্যে চরের সংগঠনগুলো গ্রাম পর্যায়ে নিয়মিত সভা, বিভিন্ন দিবস পালন, গ্রাম পর্যায়ে নারীদের বাড়িতে পুষ্টি বাগান, হাঁসমুরগি পালন, নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন, বীজ সংরক্ষণসহ অন্যান্য প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে নানান ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করছেন। নারীদের স্বাস্থ্য সচেতনতায় কমিউনিটি ক্লিনিক সেবাপ্রাপ্তিতে মতবিনিময় সভা, ধাত্রীমাতাদের প্রসুতি মায়ের সেবা প্রদান, শিক্ষা ক্ষেত্রে নারীদের এগিয়ে নিতে এসব সংগঠন সহায়ক ভূমিকা পালন করছেন।


হরিরামপুর চরাঞ্চলে লেছড়াগঞ্জ ইউনিয়নের সেলিমপুর পদ্মা নারী উন্নয়ন সংগঠনের সভাপতি পলি আক্তার বলেন, ‘নারী সংগঠনের তৈরির মাধ্যমে এলাকার মানুষ, জনপ্রতিনিধি, সমাজ সেবক, সরকারি প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ তৈরি হয়েছে। ফলে নারীদের ইউনিয়ন পরিষদের সেবা, গ্রামের সামাজিক অনুষ্ঠান ও অন্যান্য কর্মকান্ডে নারীদের যুক্ততা বৃদ্ধি পেয়েছে। সমাজের নারী নেতৃত্বের বিকাশ ঘটছে। উত্তর পাটগ্রামচর নারী উন্নয়নের সভাপতি আরজিনা বেগম ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন।’ বসন্তপুর কিশোরী উন্নয়নের সভাপতি লতা আক্তার বলেন, ‘এলাকায় কিশোরী সংগঠন তৈরির মাধ্যমে কিশোরীদের খেলাধুলা, বিভিন্ন স্কুল পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারছি। সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে আমরা বাড়িতে বাড়িতে চরে ফলজ গাছের চারা রোপণ, গ্রামের মেলা বাণিজ্য অংশগ্রহণ করা, কমিউনিটি ক্লিনিকে কিশোরীদের স্বাস্থ্য সেবা প্রাপ্তিতে আলোচনা সভা করেছি। সামাজিক গান বাজনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন বৃদ্ধি পেয়েছে।’

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: