সাম্প্রতিক পোস্ট

হাসনা হেনার ঘ্রাণে মোহনীয় করে চারিদিক

এস, এম নাহিদ হাসান, সাতক্ষীরা থেকে

হাসনাহেনা। একটি পরিচিত ফুল। বর্ষাকালে ফুটে থাকে। হাসনাহেনাকে রাতের রাণী বলা হয়। বর্ষার সময় অকৃত্রিমভাবে সারারাত সুবাস বিলিয়ে মানুষের মন জয় করে নিয়েছে এ ফুল।

IMG_20180710_071017

হাসনাহেনার আদি নিবাস ওয়েষ্ট ইন্ডিজে। তবে বাংলাদেশের সর্বত্রই এ ফুলগাছ দেখা যায়। হাসনাহেনার ইংরেজি নাম: Night queen পরিবার: Salanaceae উদ্ভিদ তাত্বিক নাম: Cestrum nocturnum। হাসনাহেনা ঝোপা আকৃতির ফুল গাছ। হাসনাহেনা গাছ ৮ থেকে ১২ ফুট পর্যন্ত লম্বা হয়। গাছের শাখা-প্রশাখা বিস্তৃত, ছাটাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে গাছের আকার-আকৃতি ছোট-বড় করে রাখা যায়।

IMG_20180710_071024

এ গাছের পাতা গাঢ় সবুজ রঙের, মধ্যশিরা কচি শাখা-প্রশাখার চামড়ার রঙ ও সবুজ হয়ে থাকে। শাখা-প্রশাখা খুব বেশি শক্ত মানের নয়। গাছের প্রতি শাখা-প্রশাখার অগ্রভাগে গুচ্ছভাবে একত্রে প্রচুর পরিমাণে ফুল ধরে। ফুলের গঠন চিকন এবং লম্বা। যে এ ফুল চেনে না সে প্রথম দেখে মনে করবে ফুলটা এখনো ফুটেনি। এফুল প্রস্ফুটিত অংশ পাঁচটি ভাগে বিভক্ত ও দেখতে তারকার মতো দেখায়। রঙ সাদা থেকে ঘিয়ে রঙের হয়ে থাকে। রাত যত গভীর হয় এর সুবাস চারিদিককে মোহনীয় করে। অনেক দূর থেকে ফুলের ঘ্রাণ পাওয়া যায়।

IMG_20180710_071031

শীতকাল বাদে প্রায় সব সময় এ ফুল ফুটতে দেখা যায়। তবে বর্ষাকালে এ ফুল বেশি ফোটে থাকে। কেউবা বাড়ির সৌন্দর্য্য বর্ধনের জন্য এফুল গাছ লাগিয়ে থাকেন। আবার অনেকে বাড়ি বেড়া হিসেবে লাগিয়ে থাকেন। হাসনাহেনা সারা দেশের মত সাতক্ষীরাতেও দেখা যায়। শহরের আমতলা, মধ্য কাঠিয়া, পুরাতন সাতক্ষীরার বিভিন্ন বাড়িতে এ গাছ দেখা যায়। অনেকে বলে থাকেন হাসনাহেনা গাছের মিষ্টি ঘ্রাণে রাতে সাপ আসে।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: