সাম্প্রতিক পোস্ট

বৈষম্যহীন সমাজ গড়ে তুলতে তরুণদের ভূমিকা নিতে হবে

হরিরামপুর, মানিকগঞ্জ থেকে সত্যরঞ্জন সাহা

উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যোগে গতকাল হরিরামপুরের এম এ রাজ্জাক আর্দশ উচ্চ বদ্যিালয়ে ‘সামাজিক কর্মকান্ড ও স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজে যুবদের ভূমিকা’ শীর্ষক জনসচতেনতামূলক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠতি হয়েছে গতকাল। প্রশিক্ষণে পদ্মা পাড়ের পাঠশালা, যুব টিমের সদস্য ও বারসিক হরিরামপুরের ৮০ জন স্বেচ্ছোসবেক অংশগ্রহণ করে।

উক্ত প্রশিক্ষণে সভাপতিত্ব করেন হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সাইফুল ইসলাম। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হরিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান দেওয়ান সাইদুর রহমান, বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মানিকগঞ্জ শাখার উপ-পরিচালক আবুল হোসেন, মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার চায়না, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার মাজহারুল হক, পদ্মাপাড়ের পাঠশালার পরিচালক মীর নাদিম হোসেন, যুব টিমের আহবায়ক শাহীন হোসনে, স্বেচ্ছাসেবক পিয়াস হোসেন, মুকতার হোসেন ও সত্যরঞ্জন সাহা প্রমুখ।

প্রশিক্ষণে সহায়কগণ বলেন, ‘আজকের যুবক আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। কিন্তু প্রতিটি যুবকে জ্ঞান অর্জনের কঠিনভাবে পরিশ্রম করতে হবে। নিজেকে জানতে হবে, সফলভাবে কাজ করতে হবে। বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটের যুগ, সকল তথ্য আছে, সেখান থেকে সেবা নেওয়ার সুযোগ আছে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো যে সকল সেবা দেয় তা গ্রহণ করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। সামাজিক কাজের জন্য সচেতন হতে হবে। অন্যদেরকে সাথে নিয়ে উদ্যোগ সৃষ্টির মাধ্যমে বৈষম্য দূর হবে।’ তারা আরও বলেন, যৌতুক, বাল্য বিয়ে, দুর্নীতি, জঙ্গীবাদ, নারীর প্রতি বৈষম্য রোধে কাজ করতে হবে। নিজের গ্রামকে দায়িত্ব নিয়ে ভালোভাবে সাজাতে হবে। নিজেদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি ও অন্যদেরকে জানানোর মাধ্যমে মানুষজন উপকৃত হবে। তবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে লেখা পড়ার বিকল্প নেই।’

আলোচনায় স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যগণ নিজেদের উদ্যোগগুলো তুলে ধরেন। তারা করোনা মহামারীর সময়ে যেসব উদ্যোগ নিয়েছে সেগুলো নিয়ে আলোচনা করেন। তাদের এসব উদ্যোগগুলো মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য হলো: প্রান্তিক মানুষকে খাবার দিয়ে ও জনসচেতনতা তৈরি, প্রাণিদের (কুকুর, বিড়াল) খাবার দেওয়া, বন্যায় রাস্তা মেরামত, সাঁকো তৈরি, রাস্তা ভাঙন রোধে ও পাখি রক্ষায় তাল, খেজুর ও ফলজ বৃক্ষ রোপণ ইত্যাদি।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: