সাম্প্রতিক পোস্ট

পুষ্টির চাহিদা পূরণে অচাষকৃত শাকসবজি

রাজশাহী থেকে সুলতানা খাতুন

তরুণ স্বপ্নযাত্র সংগঠন ও জবা কিশোরী ক্লাব সংগঠনের উদ্যোগে এবং বারসিক’র সহযোগিতায় সম্প্রতি প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণ নিয়ে সভার মাধ্যমে অচাষকৃত শাকের পাড়ামেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই অচাষকৃত শাকের পাড়া মেলায় ২৫ জন পুরুষ  ও ৬০ জন নারী অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্যে ২৫ জন্য নারী শাক নিয়ে শাকের মেলায় অংশগ্রহণ করেন। মেলায় অংশগ্রহণকারী মোসাঃ সানজিদা খাতুন বলেন, ‘এ পাড়া মেলা থেকে আমাদের নতুন প্রজন্মের অনেক কিছু  শেখা ও জানার আছে।’

মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগিদের মধ্যে ৩১ রকম অচাষকৃত শাক নিয়ে এসে ১ম স্থান অধিকার করেন মোসাঃ মীম খাতুন। ২২ ধরনের শাক নিয়ে ২য় হয়েছেন মোসাঃ সিনথিয়া খাতুন। ২১ ধরনের শাক নিয়ে এসে ৩য় হয়েছেন মোসাঃ মাহাবুবা খাতুন। যে শাকগুলো মেলায় প্রর্দশিত হয়েছে সেগুলো হলঃ কলমি শাক, সানচি, কচু, মলবি কচু, তেলাকুচা, শুনশুনি, বোথা, কানা ঘাসি, চটপটা, আটমুঠা, গাধা পুই, গিমা, দুধখুড়া, গাইখুড়া ইত্যাদি।

অচাষকৃত শাকের পাড়া মেলায় অতিথি হিসেবে মেলায় উপস্থিত ছিলেন বিলনেপাল পাড়া চাষী রহিম বখ্শ একাডেমি স্কুলের ক্রিয়া শিক্ষক মোঃ ইউনুস আলী, বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ নুরুল আমিন সিদ্দিকী ও নতুন ইউপি সদস্য মোসাঃ সুকিলা বেগম। উল্লেখ্য, বরেন্দ্র অঞ্চলের পবা উপজেলার দর্শনপাড়া ইউনিয়নের একটি গ্রাম বিলনেপাল পাড়া। ২০১৬ সাল থেকে বারসিক এই গ্রামে কাজ করে আসছে। কিশোরীদের চাহিদা অনুযায়ী সম্প্রতি এই গ্রামে জবা কিশোরী ক্লাব নামে একটি সংগঠন তৈরি করা হয়।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: