সাম্প্রতিক পোস্ট

উদ্ভিদ আর প্রাণ বৈচিত্র্যে ভরপুর একটি বাড়ী

উদ্ভিদ আর প্রাণ বৈচিত্র্যে ভরপুর একটি বাড়ী

অভিজ্ঞতা বিনিময় সফর (3)

দেশীয় উদ্ভিদে লেখা বারসিক এর নাম

শ্যামনগর, সাতক্ষীরা থেকে মননজয় মন্ডল:

কোন কিছু দেখে  জেনে বুঝে যা অর্জন করা যায়; তা আর কোন ভাবেই সম্ভব না। তাইতো অভিজ্ঞতা বিনিময় সফর এর মাধ্যমে কৃষকরা অনেক বেশি কিছু জানতে পারে এবং আত্মস্থ করে নিজের জীবনে কাজে লাগাতে পারে। তেমনই একটি অভিজ্ঞতা বিনিময় সফরে উপকুলীয় শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের চকবারা, পদ্মপুকুর ইউনিয়নের, পাখিমারা ও পদ্মপুকুর, শ্যামনগর সদর উপজেলার, কালমেঘা, রমজাননগর ইউনিয়নের মানিকখালী, কৈখালী ইউনিয়নের জয়াখালী গ্রামের কৃষক কৃষাণী ও ধানখালী’র সুন্দরবন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ১২ জন শিক্ষার্থী সহ প্রায় অর্ধ শতাধিক নারী-পুরুষ গত ২৪ মে অল্পনা রানীর কৃষি বাড়ী পরিদর্শনে আসেন। গত ২৪ মে বুধবার সকাল ১০ টায় পারস্পারিক অভিজ্ঞতা বিনিময় সফরের আয়োজন করেন গবেষণা উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান বারসিক ও স্থানীয় যুব সংগঠন সুন্দরবন স্টুডেন্টস সলিডারিটি টিম। প্রাণবৈচিত্র্য দিবসকে কেন্দ্র করে  ২১-২৭ মে ২০১৭ সপ্তাহটি বারসিক প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ সপ্তাহ ঘোষণা করে।

দর্শনার্থীদের দলীয় ছবি

দর্শনার্থীদের দলীয় ছবি

অভিজ্ঞতা বিনিময় সফরের একটি অংশ ছিল প্রাণ-প্রকৃতির পারস্পারিক সম্পর্ক দেখার জন্য বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক প্রাপ্ত কৃষাণী অল্পনা রানীর প্রাণবৈচিত্র্য সমৃদ্ধ কৃষি বাড়ী পরিদর্শন করা। পরিদর্শনকারী প্রতিনিধি দল পর্যায়ক্রমে অল্পনা রানীর স্থায়িত্বশীল কৃষি ব্যবস্থাপনা, জৈব পদ্ধতিতে বছরব্যাপী বৈচিত্র্যময় ফসল চাষাবাদ, বীজ সংরক্ষণ, সবধরনের ঔষধি গাছের বনায়ন, প্রাণীসম্পদ (গরু, ছাগল, ভেড়া, হাঁস, মুরগী, কবুতর) পালন, জৈব ও ভার্মি কম্পোষ্ট উৎপাদন, অচাষকৃত ও ঔষধি উদ্ভিদবৈচিত্র্য সংরক্ষণ, পুকুরে স্থানীয় মাছ চাষ, মুরগীর ডিম ফোটানো প্রাকৃতিক পাত্র হাজল ও জ্বালানী সাশ্রয়ী পরিবেশ বান্ধব বন্ধু চুলা সহ নানা ধরনের শুটকি খাদ্য তার বিভিন্ন পুরস্কার ও সম্মাননা স্মারক পরিদর্শন করেন। পরিদর্শক দলকে অল্পনা রানী তার বিভাগীয় জয়িতা ও বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক প্রাপ্তি সহ সফলতার অভিজ্ঞতার বর্ননা করেন। এসময় প্রাণবৈচিত্র্যের আন্ত:সম্পর্ক উন্মুক্ত আলোচনা অংশগ্রহণ করেন কৃষক শাহীন ইসলাম, কৃষানী রাশিদা পারভীন, বনশ্রী রানী, অল্পনা রানী মিস্ত্রী, স্কুল শিক্ষার্থী সম্পা গাইন, ঋতুপর্ণা মন্ডল এবং বারসিক’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী পার্থ সারথী পাল।

সফলতার অভিজ্ঞতার গল্প শোনাচ্ছেন আল্পনা রাণী

সফল অভিজ্ঞতার গল্প শোনাচ্ছেন আল্পনা রাণী

প্রাণবৈচিত্র্য সমৃদ্ধ কৃষি বাড়ী পরিদর্শন শেষে সুন্দরবন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সম্পা গাইন ও ঋতুপর্ণা মন্ডল বলেন, “আমরা পড়ালেখার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের গাছপালা ও উদ্ভিদের নাম শুনেছি। আজ আমরা দেখলাম যে একটি বাড়ীতে কত ধরনের গাছ ও বৈচিত্র্য রয়েছে। এত ধরনের গাছপালা বিশেষ করে আপেল, আঙুর, কমলা, আমলকি, আতা, করমচা, তেজপাতা, ডালচিনি প্রভৃতি গাছ দেখে আমাদের খুব ভালো লেগেছে।”

দেখে মুগ্ধ দর্শনার্থীরা

দেখে মুগ্ধ দর্শনার্থীরা

অল্পনা রানীর প্রাণবৈচিত্র্য সমৃদ্ধ কৃষি বাড়ী পরিদর্শন শেষে পরিদর্শক দল বুড়িগোয়ালিনী আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসরত বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের নানা দুর্যোগ ও লবণাক্ত পরিবেশে টিকে থাকার গল্প শুনেন ও তাদের সফলতার চিত্র ঘুরে দেখেন।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: