সাম্প্রতিক পোস্ট

হরিরামপুরে স্থানীয় সংগঠনগুলোর উদ্যোগে ২০০০ ফলজ গাছের চারা রোপণ

হরিরামপুর থেকে সত্যরঞ্জন সাহা ও মুতকার হোসেন

“দেশের বায়ু, দেশের মাটি, গাছ লাগিয়ে করব খাটি” এই স্লোগানকে সামনে রেখে হরিরামপুর উপজেলায় স্থানীয় কৃষক সংগঠন, স্বেচ্ছাসেবক টিম ও প্রতিবন্ধী উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে সম্প্রতি হরিরামপুর উপজেলা চরাঞ্চলসহ ২০০০ লেবু, পেয়ারা, জলপাই, কদবেল, ডালিম, আমড়া, বহেরাসহ কাঠ জাতীয় ফলজ ও ঔষুধি গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে। হরিরামপুর উপজেলায় বয়রা, লেছড়াগঞ্জ, হারুকান্দি, রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের আন্ধারমানিক, কর্মকারকান্দি, খালপাড় বয়রা, বাহিরচর, দড়িকান্দি, কান্ঠাপাড়া, ভেলাবাদ, পাটগ্রামচর, গঙ্গাদরধি, নটাখোলা, হরিহরদিয়া, হারুয়াঘাটাসহ মোট ১১টি গ্রামে এই চারা রোপণ করা হয়।

IMG_20180723_125937
হরিরামপুর উপজেলা একটি দূর্যোগপ্রবণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত। প্রতিবছর বন্যা ও নদী ভাঙনের ফলে গাছপালাসহ, রাস্তাঘাট, ঘরবাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কৃষি ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়, যা পরিবেশের উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় এলাকায় বৃক্ষ রোপণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

হরিরামপুর উপজেলা বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে আলোচনায় অংশ নেন হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইলিয়াস মেহেদী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবুল বাসার সবুজ, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. জহিরুল হক, সমাজ সেবা অফিসার আরিফজ্জামান, বারসিক কর্মকর্তা বিমল রায়, সত্যরঞ্জন সাহা, মুকতার হোসেন, ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান ও সায়েম।

20180723_122927
আলোচনায় বক্তারা বলেন, ‘হরিরামপুর উপজেলা বৃক্ষ রোপণ একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ। আমাদের প্রতিটি পরিবারে ফলজ গাছ রোপণের মাধ্যমে একদিকে পরিবার পর্যায়ে পুষ্টি চাহিদা পূরণ হবে, প্রাকৃতিক দুর্যোগ (বন্যা) মোকাবেলায় ব্যাপক ভূমিকা রাখবে অন্যদিকে প্রকৃতি ও পরিবেশকে ভারসাম্য রাখবে।’

এখন বর্ষা মৌসুম। গাছ লাগানোর উপযুক্ত সময়। প্রতিটি পরিবারে মৌসুমভিত্তিক স্থানীয় জাতের ফলের চারা রোপণের মাধ্যমে ফলের চাহিদা মিটবে। বাড়ির ফলকে বিষমুক্ত নিরাপদ খাদ্য হিসাবে গ্রহণ করতে পারবে সবাই।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: