সাম্প্রতিক পোস্ট

নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার বাড়াতে হবে

নেত্রকোনা থেকে হেপী রায়

নেত্রকোনা মেয়রের কাছে পৌরসভাকে সম্পূর্ণভাবে সৌর জ্বালানি ব্যবহারের আওতায় নিয়ে আসার প্রস্তাব করেন নেত্রকোনার সাংবাদিক শ্যামলেন্দু পাল। সৌরশক্তি ব্যবহারে মানুষকে আগ্রহী করে তোলার জন্য এমন উদারহণ সৃষ্টি করার আহ্বান করেন তিনি। সম্প্রতি বারসিক ও নেত্রকোনা সম্মিলিত যুব সমাজের আয়োজনে নেত্রকোনা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত ‘নবায়নযোগ্য জ্বালানি ও দরিদ্র মানুষের প্রবেশাধিকার বিষয়ে সংলাপে’ এই প্রস্তাব করেন এ সাংবাদিক।
DSC04119
সাংবাদিক শ্যামলেন্দু পাল বলেন, “যদি পৌরসভার ভবনকে সম্পূর্ণভাবে সৌর জ্বালানি ব্যবহারের আওতায় আনা যায় তবে একটি উদাহরণ তৈরি হবে। আমি পৌর মেয়রকে অনুরোধ করবো এমন একটি উদাহরণ তৈরি করে মানুষকে জানিয়ে দেওয়া।” সাংবাদিকের এই প্রস্তাবের সরাসরি কোন জবাব না দিলেও নেত্রকোনার পৌর মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার বৃদ্ধি করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, “নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার বাড়াতে হবে। গ্রামের অনেক মানুষ এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত। শুধ্ ুধনীরাই বিদ্যুৎ ব্যবহার করবে দরিদ্ররা বঞ্চিত হয়ে যাবে তা হতে পারে না। এজন্য জ্বালানি অপচয় কমিয়ে আনা জরুরি। বারসিক’র গবেষক পাভেল পার্থ বলেন, “দিনদিন জীবাশ্ম জ্বালানি শেষ হয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের দরিদ্র মানুষেরা জ্বালানি সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। জ্বালানি ব্যবহারে তৈরি হচ্ছে ধনী গরিবে বৈষম্য। আমরা আমাদের অপচয় কম করে, সূর্য্যকে ব্যবহার করে, সকল মানুষকে নিয়ে একত্রে জ্বালানি সুবিধা ভোগ করতে পারি।”

উল্লেখ্য যে, নেত্রকোনা পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান ছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ ও লেখক আনোয়ার হাসান, সাংবাদিক, লেখক, গবেষক, যুবক, শিক্ষক শিক্ষার্থী, কৃষক, পুকুরের মালিক, সোলার প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, বন্ধু চুলা সরবরাহকারী, বিদ্যুৎ ব্যবহারকারী, গ্যাস ব্যবহারকারী, গ্রামের জ্বালানি বঞ্চিত নারী-পুরুষ।

happy wheels 2
%d bloggers like this: