সাম্প্রতিক পোস্ট

প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতা বন্ধে তারুণ্যের শপথ

রাজশাহী থেকে মো. শহিদুল ইসলাম

বরেন্দ্র অঞ্চলে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত সপ্তাহব্যাপী “প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ সপ্তাহ” তারুণ্যের শপথের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো। গতকাল রাজশাহীর sec-1ঐতিহ্যবাহী রাজশাহী বড়কুঠী পদ্মা পাড়ে তরুণরা জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ও প্রাণবৈচিত্র্য সুরক্ষায় বুকে হাত দিয়ে শপথ বাক্য পাঠ করেন। বারসিক, বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি ও বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্রের (বিইসিডিপিসি) এবং বরেন্দ্র অঞ্চলের জনসংগঠনগুলোর যৌথ আয়োজনে গত ২১ মে থেকে ২৭ মে,২০১৭ পর্যন্ত “জাগাও বৈচিত্র্য, থামাও উষ্ণতা, বাঁচাও প্রাণ” শ্লোগানে প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ সপ্তাহ ঘোষণা করা হয়। এরই অংশ হিসেবে গতকাল তরুণরা নিজের প্রকৃতি, প্রাণবৈচিত্র্য, সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য ও পরিবেশ সুরক্ষায় শপথ গ্রহণ করেন। নিজেরা নিজের পরিবেশ সুরক্ষাসহ আরেকজনকেও পরিবেশ সুরক্ষায় কাজের লক্ষ্য নিয়ে আগামীতে মননশীল, সহিংসবিমুখ ও সবুজ সমাজ, দেশ ও পৃথিবী গড়ার প্রত্যয়ে তরুণরা দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

শপথবাক্যে পাঠে তরুণ বলেন, “আমরা তরুণ-যুব শক্তি, তারুণ্যের অধিকার নিয়ে শপথ করছি যে, পরিবেশ ও জীবন ভালো রাখার জন্য জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ভূমিকা রাখবো এবং সবুজ পৃথিবী গড়ার সুরক্ষায় সকল প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবো।IMG_0945 দূর্যোগ ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় আমরা একে অন্যের হাতে হাত রেখে কাজ করবো। এলাকার সংকট ও সমস্যাকে বোঝার চেষ্টা করবো।” শপথবাক্যে তারা বলেন, “এলাকার সকল শ্রেণি-পেশার প্রবীণ-নবীন, নারী-পুরুষের মতামত ও প্রস্তাবকে গুরুত্ব দিয়ে দলীয়ভাবে কোনো কাজ সফল করে তুলতে ভূমিকা রাখবো। পরিবার থেকে গ্রাম, সমাজ থেকে কর্মক্ষেত্র সর্বত্র নারী ও পুরুষের বৈষম্য দূর করে এক মানবিক শ্রদ্ধাশীল সম্পর্ক তৈরিতে কাজ করবো।”

তারা আরও বলেন, “দেশের সকল জনগোষ্ঠীর বৈচিত্র্যময় জীবন-সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবো। প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে নিজ এলাকা থেকে শুরু করে দেশের সকল প্রান্তের বৈচিত্র্য ও আন্তঃনির্ভরশীল সম্পর্ককে গুরুত্ব দিয়ে সুরক্ষার জন্য একযোগে কাজ করবো। আগামী প্রজন্মের জন্য এক সুন্দর সবুজ পৃথিবী গড়ার লক্ষ্যে সমাজের সকলকে সাথে নিয়ে একযোগে এগিয়ে যাবো। আমাদের সম্মিলিত স্বপ্ন ও সাহসী পদক্ষেপের মাধ্যমে আমরা রচনা করবো একটি সবুজ স্বপ্নিল পৃথিবী।”
IMG_0955
শপথবাক্য পাঠ করান বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি ও বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্রের তরুণ অংশের সভাপতি জাওয়াদ আহমেদ রাফি। সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানের নানা দিকগুলো তুলে ধরে বারসিক বরেন্দ্র অঞ্চল সমন্বয়কারী মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, “সপ্তাহ ব্যাপী অনুষ্ঠানে বরেন্দ্র অঞ্চলের তানোর, গোদাগাড়ী, পবা, নওগাঁ, চাপাইনবাগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকার নানা শ্রেণী পেশার মানুষ, জনসংগঠন,তরুণ সংগঠন, স্কুল, কলেজ, সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো এই আয়োজনে একাত্মতা ঘোষণা করেছিলো। নিজের প্রকৃতি, পরিবেশ ও সাংস্কৃতিকে রক্ষার জন্যে নানাভাবে কর্মসূচি পালন করেছেন।” তিনি আরও বলেন, “হাজার হাজার মানুষ সপ্তাহব্যাপী এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন। আমরা এমন একটি সমাজ বির্নিমাণে সহায়ক হিসেবে কাজ করছি যেখানে সাংস্কৃতিক ভিন্নতা ও প্রাকৃতিক বৈচিত্র্যের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এমন সমাজ যেখানে মানুষসহ সকল প্রাণ ও অন্যান্য প্রাকৃতিক সম্পদ পারস্পারিক নির্ভরশীলতায় বিকশিত হবে।”

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র শিক্ষা সংস্কৃতি ও বৈচিত্র্য রক্ষা কেন্দ্রের প্রচার সম্পাদক শামীউল আলিম শাওন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক জিনাত আরা, বারসিক রাজশাহী রিসোর্স সেন্টারের কর্মসূচি কর্মকর্তা জাহিদ আলী, কৃষিবিদ অমৃত কুমার সরকার। শপথ অনুষ্ঠানে বরেন্দ্র অঞ্চলের নানা প্রান্ত থেকে আগত প্রায় ৭০ জন তরুণ অংশগ্রহণ করেন।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: