সাম্প্রতিক পোস্ট

পরিবেশবান্ধব চুলা ও হাজল পদ্ধতির ব্যবহার নিয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত

মানিকগঞ্জ থেকে মো. নজরুল ইসলাম ও গাজী শাহাদত হোসেন বাদল

মানিকগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার কৈতুরা গ্রামে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক’র সহযোগিতায় কৈতুরা নতুনপাড়া কৃষক-কৃষাণী সংগঠনের আয়োজনে গত ১১ ফেব্রুয়ারি কার্বননিরপেক্ষ পরিবেশবান্ধব চুলা তৈরির ও হাজল পদ্ধতিতে মুরগির বাচ্চা ফোটানোর স্থানীয় কৌশল বিষয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

51642198_361116804474986_6621666825316859904_n
কর্মশালায় আনোয়ারা বেগমের সভাপতিত্বে উক্ত বিষয়ে তথ্য ও উপাত্ত উপস্থাপন করেন বারসিক পোগ্রাম অফিসার মো. মাসুদুর রহমান। কার্বননিরপেক্ষ পরিবেশবান্ধব চুলা তৈরির স্থানীয় কৌশল নিয়ে আলোচনা করেন আলেয়া বেগম এবং হাজল পদ্ধিতে মুরগির ডিম থেকে বাচ্চা তৈরির বিষয়ে আলোচনা করেন পারভিন বেগম। এছাড়াও কর্মশালায় সহায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বারসিক কর্মকর্তা গাজী শাহাদত হোসেন বাদল, শাহীনুর রহমান শাহীন প্রমুখ।

51674572_529551234117535_7523242123592728576_n
স্থানীয় প্রশিক্ষকরা বলেন, ‘পুকুর বা ডোবা থেকে এক ধরনের বিশেষ লেতী কাদা মাটি ও লোহার পাত দিয়ে বিশেষ পদ্ধতিতে চিমনীবিহীন গভীরতা রেখে ছোট ঝিক দিয়ে তৈরি চুলায় ধোয়া কম বের হবে। আগুনের অপচয় হবে না। অল্প সময়ে রান্না হবে। জ্বালানি কম লাগবে বিধায় সাশ্রয়ী এই চুলা পরিবেশবান্ধব ও কার্বননিরপেক্ষ।’

অন্যদিকে হাজল বিশেষজ্ঞ নারী জানান, একই কায়দায় বিশেষ পদ্ধতির মাটি দিয়ে তৈরি হাজলে মুরগীর সামনে খাবার পানি থাকার সুবিধার কারণে মুরগীকে বাইরে যেতে হয় না, ডিম নষ্ট হয় না, ডিম নির্দিষ্ট সময়ে ফোটে বাচ্চা হয় এবং অল্পতেই মারা যায় না। মুরগি ও বাচ্চাগুলো স্বাস্থ্যবান থাকে।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: