সাম্প্রতিক পোস্ট

বিনামূল্যে কোচিং দিচ্ছে স্বপ্নচারী সংগঠন

:: রাজশাহী থেকে মো. শহিদুল ইসলাম শহিদ::
sopnochari2তানোর উপজেলার গোকুল মথুরা গ্রামের স্বপ্নচারী উন্নয়ন সংগঠনের সদস্যরা দরিদ্র ও  পিছিয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য কোচিং সেন্টার প্রতিষ্ঠা করে। এই কোচিং সেন্টারের মাধ্যমে দরিদ্র ও পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে কোচিং করানো হবে বলে সংগঠনের সদস্যরা জানান।

স্বপ্নচারী সংগঠনের বর্তমান সদস্য সংখ্যা ৪৫ জন এবং তাদের একটি ৫ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি রয়েছে। সংগঠনটিকে দিক নির্দেশনা দেওয়ার জন্য এলাকার কিছু গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে ১৫ সদস্যের একটি উপদেষ্টা কমিটিও রয়েছে। স্বপ্নচারী সংগঠনের সদস্যরা সংগঠিত হয়ে ইতিমধ্যে গ্রামের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবেশ ও গ্রামীণ সংস্কৃতি রক্ষায় বিভিন্ন কাজ করে যাচ্ছে। পাশাপাশি সহযোগী সংগঠনের ভালো উদ্যোগগুলো অনুসরণ করেও কাজ হাতে নিচ্ছে। শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে কোচিং করানোর উদ্যোগটিও তাদের অন্যান্য উদ্যোগগুলোর মধ্যে একটি।

এই প্রসঙ্গে সংগঠনের সভাপতি রুবেল হোসেন মিন্টু বলেন,“গোকুল মথুরা গ্রামের প্রায় ৫০০ পরিবারের মধ্যে খুব অল্প সংখ্যক পরিবার তাদের সন্তানদের কোচিং করার সামর্থ্য রাখে; বাকিরা নয়। ক্লাসে ভালো করতে না পারলে শিক্ষার্থীদের ভেতরে ভয়, লজ্জা ও আতংক কাজ করে। ফলে তারা লেখাপড়া থেকে ঝরে পড়ে। লেখাপড়া থেকে ঝরে পড়ার কারণে অল্প বয়সে তাদের বিয়ে হয়ে যায়।” তিনি বলেন, “এভাবে বাল্যবিবাহ নামক সামাজিক ব্যাধি দেখা দেয়। অকালে ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের দেওয়া হচ্ছে বিয়ে, ফলে প্রশাসন পুলিশ দিয়েও রোধ করতে পারছে না বাল্যবিবাহ।”

সমাজে বাল্যবিবাহ রোধ এবং শিক্ষা হার বৃদ্ধিতে সহায়তার করার জন্যই স্বপ্নচারী সংগঠনের সদস্যরা বিনামূল্যে কোচিং করানোর উদ্যোগ নিয়েছে বলে তিনি জানান। রাজশাহী জেলার তানোর পৌরসভার গোকুল-মথুরা গ্রামে বিগত ৬ মাস আগে পিএসসি ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে কোচিং ব্যবস্থা চালু করা হয়। আর তাদের এই কোচিং সেন্টারে স্থান পায় সামাজের অতি দরিদ্র মানুষের সন্তানরা।

স্বপ্নচারী উন্নয়ন সংগঠনের উদ্যোগে গত ৫ জানুয়ারি গোকুল মথুরা প্রাথমিক বিবদ্যালয়ে ২২ জন শিক্ষার্থী নিয়ে কোচিং সমাপনী শেষে “পিএসসি বিদায়ী দল-২০১৫” এর বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিগণ এই মহৎ কাজকে আরও সম্প্রাসারিত করার জন্য নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন। যাতে এই কাজটি সম্প্রসারিত হয়ে তানোরসহ অন্যান্য এলাকায় স্থান পায়।

উল্লেখ্য যে, পিএসসি বিদায়ী দল এর বিদায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  সমাজসেবক রফিকুল ইসলাম, তানোর সাহিত্য পরিষদের সভাপতি অসীম কুমার সরকার, আব্দুর হামিদ সুপার, বিলকুমারী সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদক প্রবীণ কবি রেজাউল ইসলাম, সমাজসেবক মো. আবদুল মতিন এবং বারসিক প্রতিনিধি।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: