সাম্প্রতিক পোস্ট

শুভ বিদায় হেমন্ত

চাটমোহর, পাবনা থেকে ইকবাল কবীর রনজু

শীতের পূর্বাভাস নিয়ে আসা হেমন্ত ঋতুর এবার বিদায়ের পালা। ছয় ঋতুর চতুর্থ ঋতু হেমন্ত। কার্তিক ও অগ্রহায়ণ মাস নিয়ে গঠিত এ ঋতুটি নানা কারণে আমাদের মনকে করে আন্দোলিত। নবান্ন উৎসব এ ঋতুতে যোগ করে ভিন্ন মাত্রা।

hemonto-1
কার্তিকের পরিপক্ক ধান অগ্রহায়ণে কাটা হয়। তাই ধান কাটার ঋতু হেমন্ত। ফসল ঘরে তোলার ঋতু হেমন্ত। আমন ধান কাটার পর বাড়িতে বাড়িতে নতুন ধানের চালের পিঠা পায়েস তৈরির ধুম পরে। শ^শুর বাড়ির কাজ শেষে মেয়েরা জামাইসহ আসে “নাইওরে”। জলবায়ুর পরিবর্তনের প্রভাবে হেমন্ত ঋতু প্রকৃতি থেকে প্রায় হারিয়ে যাওয়ার উপক্রম হলেও এখনো এ ঋতুতে দেশীয় নৃত্য, গান বাজনা, বাঙালিপনায় মাতে গ্রামের মানুষ।

hemonto-4
এ ঋতুতে কেবল কৃষক নয় কৃষি সংশ্লিষ্ট শ্রমিকেরা কাজের সুযোগ পান। বিনিময়ে আহার জোটে তাদেরও। চাকানির্ভর এক শ্রেণীর মানুষ গরু, মহিষ, ঘোড়ার গাড়িতে, লসিমন, করিমন, ভ্যান যোগে মাঠ থেকে কৃষকের ধান বয়ে বাড়িতে পৌছে দেবার কাজ করেন। তারা ও অপেক্ষায় থাকেন হেমন্ত আসার। এ কাজ করে তারাও আয় করেন অর্থ। শুধু তাই নয় ধান কুরাণীরা হেমন্তকে বরণ করে সাদরে। কেননা, এসময় মাঠে মাঠে ধান কুড়িয়ে তারা ব্যবস্থা করেন কয়েক মাসের অন্নের।

hemonto-5
কামিনী, শিউলী, ছাতিম, মল্লিকা,গন্ধরাজসহ হরেক রকম ফুল এ ঋতুতে ফুটে থাকে। সুফিয়া কামাল তার হেমন্ত কবিতায় লিখেছেন, সবুজ পাতার খামের ভেতর/হলুদ গাঁদা চিঠি লেখে/ কোন্ পাথারের ওপার থেকে/আনল ডেকে হেমন্তকে। আবার হেমন্তকে নিয়ে রবি ঠাকুরের লেখা হিমের রাতে ওই গগনের দীপগুলিরে, হেমন্তিকা করল গোপন আঁচল ঘিরে। ঘরে ঘরে ডাক পাঠালো ‘দীপালিকায় জ্বালাও আলো, জ্বালাও আলো, আপন আলো, সাজাও আলোর ধরিত্রীরে’। এছাড়া আরো অনেক কবি সাহিত্যিকেরা হেমন্তের শান্ত প্রকৃতিকে, হেমন্তের ফুল ফল ফসলকে যে ভাবে আমাদের সামনে উপস্থাপন করেছেন তাতে হেমন্তকে ভোলার উপায় নেই। এ ঋতুকে ফিরে পেতে আমাদের অপেক্ষা করতে হবে পাঁচটি ঋতু। শুভ বিদায় হেমন্ত।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: