সাম্প্রতিক পোস্ট

কাটা অংশ জোড়া লাগায় ‘জার্মানি পাতা’

কাটা অংশ জোড়া লাগায় ‘জার্মানি পাতা’

সাতক্ষীরা থেকে বাহলুল করিম:

শরীরের কাটা অংশ জোড়া লাগাতে জাদুকরী ক্ষমতা রয়েছে জার্মানি লতায়। এছাড়া রক্ত বন্ধে, গ্যাসট্রিক সমস্যায়, বিষ কাটাতে, হাঁস-মুরগির অসুখে, শরীরের ত্বক ভালো রাখতে, মেছতার দাগ দূর করতে জার্মানি লতা ঔষুধের মতো কাজ করে।

Jermany Lota (1)চলার পথে ঝোপ-ঝাড়ে, জঙ্গলে, রাস্তার আশেপাশে জার্মানি লতা দেখা যায়। পরিবারে কারো কেটে গেলে এই পাতার রস ক্ষতস্থানে লাগায়। এতে তাৎক্ষণিক রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যায়। তাড়াতাড়ি কাটা অংশও জোড়া লেগে যায়।

জার্মানি লতা এক ধরণের লতা জাতীয় গ্রীষ্মম-লীয় উদ্ভিদ। লতাজাতীয় উদ্ভিদ বিধায় অন্য গাছের উপর নির্ভর করে বেড়ে ওঠে এটি। কান্ড নরম প্রকৃতির হয়ে থাকে। পাতা গাড় সবুজ রঙের। পাতাগুলো দেখতে অনেকটা পান পাতার মতো; কিন্তু আকোরো ছোট। এর ফুল ও বীজ সাধারণত সাদা রঙের হয়ে থাকে।

অনেকের কাছে এটা জার্মান লতা, জার্মানি লতা, পাকিস্তানি লতা, বুড়ি পান লতা, আগাছা ও পরগাছা হিসেবেও পরিচিত। তবে অধিকাংশের কাছে জার্মানি লতা হিসেবে অধিক পরিচিত।

Jermany Lota (2)‘জার্মানি লতার বৈজ্ঞানিক নাম Mikania Micrantha। জার্মানি লতা মিকানিয়া গণভুক্ত উদ্ভিদ, যারা কয়েক’শ প্রকার সপুষ্পক লতাজাতীয় উদ্ভিদ। মিকানিয়া গণভুক্ত প্রায় ৪৫০ ধরণের প্রজাতি রয়েছে। বাংলাদেশে Mikania kicrantha এবং Mikania Scandens এই দুটি প্রজাতি বেশি দেখা যায়। জার্মানি লতা বলতে মূলত এই দুই প্রজাতিকে বোঝানো হয়।

Jermany Lota (3)জার্মানি লতার আদি নিবাস দক্ষিণ আমেরিকা। এটি একটি উজ্জ্বল ক্রমবর্ধমান লতা যা উচ্চ আদ্রতা, হালকা এবং মাটি উর্বরতা অঞ্চলে সর্বোত্তমভাবে বৃদ্ধি পায়। যদিও এটি কম উর্বর মাটিগুলোকে অনুকূল করতে পারে। দিনে জার্মানি লতা ৮০-৯০ মিলিমিটার পার্যন্ত বদ্ধি পায়। দ্রুত বর্ধনশীল বিধায় ইংরেজীতে এটাকে মাইল-আ-মিনিট নামেও ডাকা হয়।

জার্মানি লতার বীজ বায়ুর মাধ্যমে ছড়িয়ে য়ায়। এভাবে এর বংশবিস্তার ঘটে। এক ঋতুতে একটি গাছ ২০-৪০ হাজার বীজ উৎপাদন করতে পারে।’

এ প্রসঙ্গে কাটিয়া সরকার পাড়ার বাসিন্দা নার্গিস আক্তার বলেন, “শরীরের কোন অংশ কেটে গেলে জার্মানি লতার পাতা পিঁষে রস করে কাটা অংশে লাগালে রক্ত বন্ধ হয়ে যায়। কাটা অংশ জোড়া লাগাতেও জাদুকরী ভূমিকা পালন করে এটি।”

কাটিয়ার বাসিন্দা শামসুননাহার রেণু বলেন, “বিষাক্ত পোকায় কামড়ালে জার্মানি লতার পাতা রস করে লাগালে উপকার পাওয়া যায়।”

Jermany Lota (4) (1)মৃগীডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা শাহারুন নেছা বলেন, “গ্যাসের সমস্যায় জার্মানি লতার পাতা কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। গ্যাস হলে এই পাতা পিঁষে চা-কাপের হাফ কাপ পরিমাণ রস ও এক চা-চামচ আখের চিনি মিশিয়ে খেলে ভালোই উপকার পাওয়া যায়। এছাড়া হাঁস-মুরগির অসুখ হলে এই পাতার রস খাওয়ানো হয়।”

শহরের মিলবাজারের বাসিন্দা ও পুষ্টির ফেরিওয়ালা রুহুল কুদ্দুস রনি বলেন, “জার্মানি পাতার রস শরীর ঠান্ডা করে। এই লতার পাতা ও কাঁচা হলুদ একসাথে পিঁষে সারা শরীরে লাগালে ত্বক ভালো থাকে। এছাড়া মুখের মেছতা দূর করতেও কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে।”

সব মিলিয়ে জার্মানি লতায় রয়েছে নানাবিধ ঔষধী গুণাবলি। এই লতা কবিরাজি ও আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় বহুল ব্যবহৃত হয়। জার্মানি লতা পারিবারিক ঔষুধের চাহিদা মেটাতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: