সাম্প্রতিক পোস্ট

কৃষককে মূল্যায়ন করতে হবে

সিংগাইর, মানিকগঞ্জ থেকে শিমুল বিশ্বাস
কৃষিতে কৃষকের অধিকার, নারী কৃষকের মর্যাদা ও স্বীকৃতি, কৃষক পেনশন স্কীম চালু করাসহ, পরিবেশবান্ধব কৃষি চর্চা সম্প্রসারণ, পরিবেশ উন্নয়নের অঙ্গীকার নিয়ে গত ২৩ নভেম্বর মানিকগঞ্জ জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটির দ্বি-বাষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত সম্মেলনে মনিকগঞ্জ জেলার মানিকগঞ্জ সদর, হরিরামপুর, ঘিওর, সিংগাইর উপজেলার বিভিন্ন স্তরের কৃষক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। মানিকগঞ্জ জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটি এবং মানিকগঞ্জ জেলা কৃষি গবেষক ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত কৃষক সম্মেলনের সার্বিক সহায়তা করে বারসিক।

জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটির সভাপতি করম আলী মাস্টারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কৃষক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মো: মাহবুবুল ইসলাম টুকু। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বীজ প্রত্যয়ন অফিসার কৃষিবিদ রওশন আলম, বীজ প্রত্যয়ন কর্মকর্তা কৃষিবিদ তাহমিনা শহীদ, জেলা পরিষদের সদস্য শামিমা চায়না।

আলোচনা মধ্যদিয়ে বক্তরা এলাকার কৃষি সমস্যা এবং সমস্যা সমাধানে কৃষকদের ঐক্য তৈরি, পরিবেশ বান্ধব কৃষি চর্চার সম্প্রসারণ ও সরকারী সেবা ও সহায়তা বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

কৃষক সেলিনা বেগম বলেন, ‘আমরা আমাদের অধিকার বিষয়ে অনেক সচেতন। আমরা বুঝতে পারি আমাদের কি করা দরকার। কৃষকদের দুর্বল ভাবার সুযোগ নেই। কৃষককে মূল্যায়ন করতে হবে। করোনায় কৃষক ঝুঁকি নিয়ে উৎপাদন ব্যবস্থা সচল রেখেছিলো বলেই দেশে খাদ্য সংকট দেখা দেয় নাই। তাই আমাদের নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিজেদেরই সচেষ্ট হতে হবে।”

কৃষক গবেষক ফোরামের সদস্য শহীদ বিশ্বাস হাট বাজারে খাজনা আদায়ের চার্ট টানানোর দাবি জানান। কৃষক গবেষক ফোরামে সভাপতি মাসুদ বিশ্বাস বলেন,“ কৃষকরা পিছিয়ে আছে। কৃষক ন্যায্য মূল্য পায় না। মর্যাদাও পায় না। তাই ন্যায্যমুল্য প্রাপ্তিতে ইউনিয়ন পর্যায়ে ক্রয়কেন্দ্র এবং কৃষককে খাদ্যযোদ্ধা সহ কৃষক পেনশন স্কীম চালু করতে হবে।”

জেলা উন্নয়ন কমিটির সভাপতি করম আলী মাস্টার সমাপনি বক্তব্য প্রদান করেন। তিনি কৃষকদের মধ্যে আন্তঃযোগাযোগ বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এছাড়া তিনি মিডিয়ার কাছে আবেদন জানান যেন তারা কৃষকের সমস্যা নিয়মিত সরকারের কাছে তুলে ধরেন। এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অতিন্দ্র চক্রবর্তী বিপ্লব বলেন, ‘আপনাদের সমস্যাগুলো আমাদের অবহিত করেন আমরা অবশ্যই তা তুলে ধরবো।’

পরিশেষে বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত কৃষক প্রতিনিধি এবং বারসিক মানিকগঞ্জের সকল স্তরের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পুরাতন জেলাকমিটির বিলোপ এবং কমর আলী মাস্টারকেই সভাপতি করে নতুন জেলা কমিটি এবং জেলা কমিটির কাজে সহায়তা করার জন্য একটি উপদেষ্টা কমিটি গঠিত হয় এবং উক্ত নবগঠিত কমিটি মানিকগঞ্জ জেলার কৃষি বিষয়ক সমস্যা সমাধানে নিরলসভাবে কাজ করবেন শপথ গ্রহণ করেন।

কৃষক সম্মেলনের আলোচনা অনুষ্ঠানে কৃষকের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ ও দাবি নিয়ে কথা বলেন বলধারা ইউনিয়ন কৃষি উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আ: লতিফ, বায়রা ইউনিয়ন কৃষি উন্নয়ন কমিটির সভাপতি ফরহাদ হোসন, জেলা কৃষক গবেষক ফোরামের সভাপতি মাসুদ বিশ্বাস, সিংগাইর উপজেলা নারী উন্নয়ন কমিটির সভাপতি সেলিনা বেগম, জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ইমান আলী, বারসিক মানিকগঞ্জের ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য রোকেয়া বেগম, প্রবীন কৃষক বাবর আলী, কৃষক প্রতিনিধি শহীদ বিশ্বাস, হাজেরা বেগম, হযরত আলী, মোজাম্মেল হক প্রমুখ।

এর আগে বারসিক’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী বিমল রায়ের স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে কৃষক সম্মেলনের আনুষ্ঠানিকতা শুরুæ হয়। শুরুতে বিগত ৫ বছরে কর্ম এলাকার বিভিন্ন জনসংগঠনের মধ্য থেকে পরলোকগত সদস্যদের আত্মার শান্তি কামনায় এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। অতঃপর সিংগাইর উপজেলায় চলমান কৃষক অধিকার কর্মসূচির আওতাধিন বাঙলা কৃষক কৃষাণি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সেলিনা বেগমকে বলধারা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হওয়ায় জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটির পক্ষ থেকে সংর্ব্ধনা দেওয়া হয়। জেলা কৃষি উন্নয়ন কমিটির বিগত ৫ বছরের সফলতার তথ্য সমৃদ্ধ প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো: ইউসুফ আলী।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: