সাম্প্রতিক পোস্ট

যৌতুককে ‘না’ বলার প্রত্যয় নিলেন যুবকরা

মানিকগঞ্জ থেকে মো. নজরুল ইসলাম
‘নারী-পুরুষে বৈষম্য হ্রাস করি, নারীবান্ধব সাংস্কৃতিক সমাজ গড়ি’ এই ¯েøাগানকে ধারণ করে মানিকগঞ্জ সিংগাইর অঞ্চলে কনকলতা কিশোরী ক্লাব, বিনোদপুর নয়াপাড়া তরুণ সংঘ ও নিরাভরন থিয়েটরের যৌথ আয়োজনে এবং বারসিক’র সহযোগীতায় বারসিক বায়রা রিসোর্স সেন্টার মিলনায়তনে আজ (১৭ সেপ্টেম্বর) এক যুব কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


কর্মশালায় জেন্ডার বিষয়ক ধারণাপত্রে বৈষম্যভিত্তিক সমাজে বৈচিত্র্য ও আন্তঃনির্ভরশীলতা নিয়ে আলোকপাত করেন বারসিক প্রোগ্রাম অফিসার শিমুল কুমার বিশ^াস, করোনাকালীন নারীর অবস্থা ও অবস্থানের আলোকে সাংস্কৃতিক চর্চাকে বেগবান করতে আলোচনায় সহায়কের ভূমিকা পালন করেন জেলা শিল্পকলা একাডেমীর আবৃত্তি প্রশিক্ষক ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্টতত্ত¡ বিভাগের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ সনেট, বহুত্ববাদি সাংস্কৃতিক চর্চার আলোকে কিভাবে নারীবান্ধব সমাজ প্রতিষ্ঠা বিষয়ক আলোচনায় সহায়ক ছিলেন বারসিক আঞ্চলিক সমন্বয়কারি বিমল রায়।
সহায়কদের আলোচনার আলোকে অংশগ্রহণকারীরা নারী-পুরুষে বৈষম্য, বাল্য বিয়ে, যৌতুক ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ক প্রস্তাবনা তুলে ধরেন।

অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে থেকে আরমিনা আক্তার বলেন, ‘নারী-পুরুষে বৈষম্য হ্রাস করতে হলে নারীকে সুশিক্ষা অর্জন করতে হবে। সমাজই নারী-পুরুষে বৈষম্য সৃষ্টি করেছে। তাই এর সমাধান সমাজকেই করতে হবে।’ সাদিয়া আক্তার বলেন, ‘নারী-পুরুষের সমতা আনতে হলে আগে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করতে হবে।’ অন্যদিকে সুলতান আলী ও আদনান রুবেল বলেন, ‘জেন্ডার সমতা,স্বাধীনতা, সক্ষমতা, আস্থা অর্জনে নারী-পুরুষ দুজনকেই এগিয়ে আসতে হবে।’ নাট্যকর্মী শরিফুল বলেন, ‘বৈষম্যটা পরিবার থেকেই শুরু হয়, তাই আমাদের পরিবার থেকেই ভয়কে জয় করার কাজে অংশগ্রহণ করতে হবে। তানিয়া আক্তার বলেন, ‘নারীর অগ্রযাত্রার প্রথম বাধা পরিবার। পরিবারে বিশ^াস অর্জন করতে হবে এবং সাহস নিয়ে বলতে হবে আমি যৌতুক দিয়ে বিয়ে করব না। যৌতুক, ইভটিজিংসহ সামাজিক সহিংসতা প্রতিরোধ করতে হবে। যৌক্তিকতা তুলে ধরতে হবে, নিজের প্রতি বিশ^াস রাখতে হবে, পরিবার থেকেই প্রতিবাদী হইতে পারলে বাল্য বিয়ে, যৌতুক, ইভটিজিং প্রতিরোধ করতে পারবো।’ অংশগ্রহণকারীরা একযোগে যৌতুক ও বাল্য বিয়েকে ‘না’ বলেন এবং তারা কেউ যৌতুক নিয়ে বিয়ে করবে না এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।


উল্লেখ্য, কর্মশালায় কনকলতা কিশোরী ক্লাবের সভাপতি তানিয়া আক্তারের সভাপতিত্বে বারসিক প্রকল্প সহায়ক আছিয়া ও রিনা আক্তারের কন্ঠে দেশাত্ববোধক গান দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। কর্মশালার লক্ষ উদ্দেশ্য ও কার্যক্রম বিষয়ক ধারণাপত্র পাঠ করেন বারসিক প্রকল্প কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: