সাম্প্রতিক পোস্ট

আগাথা: একটি উদ্ভিদের নাম

কলমাকান্দা থেকে গুঞ্জন রেমা
চন্দ্রডিঙ্গা গ্রামের স্বপন মারাক এর ঘরের কীনারের এককোনে একটি গাছ ঝোপের মত হয়ে আছে। দেখে মনে করেছিলাম কোন আগাছা। গাছের উচ্চতা হলুদ গাছের মত। আবার দেখতে পাতা ও গাছটি অনেকটা কলা পাতা ও কলা গাছের মত তবে আকারে অনেক ছোট চিকন। এমন গাছ আর কোথায় দেখি নাই। তাই আগ্রহ হল এই গাছ সম্পর্কে জানবার। গাছটি সম্পর্কে জানালেন স্বপন মারাক। তিনি এই গাছটি সিলেট থেকে নিয়ে এসেছেন।


এই গাছের মূলে গোলাকৃতির এক ধরণের আলু হয়। যা সেদ্ধ করে খাওয়া হয়। খেতে খুবই সুস্বাদু ও মজা। তবে ঔষধ হিসেবে ব্যবহার করা হয় কিনা তা তিনি জানেন না। এই গাছের নাম হলো আগাথা (গারো নাম) বাংলা নাম জানা যায়নি। এই গাছটি চৈত্র/বৈশাখ মাসে রোপণ করা হয়। বর্ষার শেষে অর্থাৎ কার্তিক/অগ্রহায়ণ মাসে তোলা হয়। তারপর সেদ্ধ করে খাওয়া হয়।


একটি গাছ রোপণ করা হলে একটা থেকে অনেকগুলো গাছ হয়ে যায় । তিনি দু’টি গাছ রোপণ করেছিলেন সেখান থেকে এখন অনেকগুলো গাছ হয়েছে। এ গাছ দিয়ে কবিরাজী চিকিৎসার কাজেও ব্যবহার করা হয় এবং এটি নাকি আদিবাসীদের প্রিয় একটি খাবার বলে জানান সুনীল ¤্রং।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: