সাম্প্রতিক পোস্ট

প্রকৃতি রক্ষা ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার সুরক্ষায় যুবদের উদ্যোগ

নেত্রকোনা থেকে রুখসানা রুমী

নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমূল ইউনিয়নের একটি গ্রাম পাড়াদূর্গাপুর। গ্রামের প্রায় ৮০ ভাগ পরিবারই কৃষি কাজের সাথে সম্পৃক্ত বিধায় তাদের আয়ের মূল উৎসও কৃষি। গ্রামের যুব সমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখা, গ্রামের অন্য ছেলে-মেয়েদের শিক্ষা লাভে উৎসাহিত করা ও এলাকার ছোট ছোট উন্নয়নমূলক কাজ করার জন্য গ্রামের কিছু সংখ্যক উদ্যোগী যুবক ‘প্রকৃতি ও জীবন’ নামে একটি যুব সংগঠন গড়ে তোলেন।

20160625_135515-W600

সংগঠনটি প্রায় ৪ বছর যাবত দরিদ্র শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা উপকরণ (খাতা, কলম) দিয়ে সহায়তা, স্কুলের শিক্ষার্থীদের ঔষধি গাছে পরিচিতি, মাদকের কুফল ও বাল্যবিবাহ সম্পর্কে যুব সমাজের সচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচারণা চালিয়ে আসছে। সংগঠনের উদ্যোগে সামাজিক বিভিন্ন ইস্যুভিত্তিক সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনার ফলে গ্রামের যুব সমাজ শিক্ষা ক্ষেত্রে আরও উদ্বুদ্ধ হচ্ছে। তারা মাদক থেকে নিজেদের বিরত রাখতে সক্ষম হচ্ছে, বাল্যবিবাহ বন্ধে সংগঠনের সদস্যরা এলাকায় জোর প্রচারণা চালিয়ে অভিভাবক ও যুব সমাজকে সচেতন করার উদ্যোগ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করেছে।

এই যুব সংগঠনের উদ্যোগে গ্রামের ১০ জন প্রতিবন্ধী নির্বাচিত করে তাদের বিভিন্ন ধরণের সহায়তা প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এছাড়াও সংগঠনের সদস্যরা ক্ষেতে খামারের জলাবদ্ধতা দূরীকরণে ইউনিয়ন পরিষদের সহযোগিতায় গ্রামের রাস্তায় একটি কালভার্ট স্থাপন করেছে এবং ৩ জন প্রতিবন্ধিকে প্রতিবন্ধি কার্ডের ব্যবস্থা করে দিয়েছে। একজন নারী বাক প্রতিবন্ধীকে বাঁশ শিল্পের কাজের জন্য ১৫ জন যুবক নিজ নিজ বাড়ি থেকে একটি করে ১৫টি বাশঁ সংগ্রহ করে দিয়েছে। বাঁশ সহায়তা পেয়ে বাক প্রতিবন্ধি জায়েদা খাতুন বাঁশের ঢাকি, চালনী, ডালাা, পাখা ইত্যাদি তৈরি ও বিক্রি করে পরিবারের আয় বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছে।

20170525_114959-W600

পাড়াদূর্গাপুর গ্রামের ‘প্রকৃতি ও জীবন’ যুব সংগঠনের শিক্ষা, সমাজ, প্রকৃতি ও পরিবেশের উন্নয়নে গৃহীত উদ্যোগ এলাকার সকল মহলে খুবই প্রশংসিত হচ্ছে। ‘প্রকৃতি ও জীবন’ সংগঠনের ন্যায় নেত্রকোনা অঞ্চলের প্রতিটি গ্রামের যুব সমাজ সংগঠিত হয়ে শিক্ষা, সংস্কৃতি, সমাজ, প্রকৃতি ও পরিবেশের উন্নয়নে বিভিন্ন ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করলে সমাজ থেকে সকল অনাচার, অবিচার দূর করা সম্ভব হবে। সমাজের সকল মানুষ ও সকল প্রাণ পরস্পরের উপর নির্ভরশীল হয়ে আন্তঃনির্ভরশীল সমাজ গঠনে সক্ষম হবে। মানুষ, প্রকৃতি ও পরিবেশের পারস্পারিক সম্পর্কের উন্নয়ন সুনিশ্চিত হবে। দেশের যুব সমাজ প্রতিবন্ধী ও প্রবীণদের কলাণে এগিয়ে আসলে প্রবীণ জনগোষ্ঠীর অধিকার সুনিশ্চিত হবে বলে আমরা মনে করি।

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: