সাম্প্রতিক পোস্ট

নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার ইতিহাস জানানো আমাদের দায়িত্ব

সিংগাইর মানিকগঞ্জ থেকে শাহীনুর রহমান ও গাজী শাহাদাত হোসেন বাদল

‘এসো স্বাধীনতার গল্প শুনি’ স্লোগানের আলোকে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার পুটাইল ইউনিয়নের কৈতরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মুজিব শতবর্ষ,স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে স্বাধীনতার গল্পের আসর, আলোচনা সভা ও গ্রামীণ খেলাধুলা অনুষ্ঠিত হয়েছে সম্প্রতি।


বারসিক’র সহায়তায় কৈতরা নতুনপাড়া ও এগারোশ্রী কৃষক কৃষাণি সংগঠন অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে। কৈতরা নতুন পাড়া সংগঠনের সভাপতি আনোয়ারা বেগমের সভাপতিত্বে বারসিক কর্মকর্তা গাজী শাহাদাত হোসেন বাদলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সামাজিক সাংষ্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির মানিকগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আ্যডভোকেট দীপক কুমার ঘোষ।


স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরে আলোচনায় আরো অংশগ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধ প্রত্যক্ষ দর্শনকারী প্রবীণ নারী শোভা মন্ডল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সুভাষ সরকার (ডুবল), অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক নিমাই চন্দ্র মন্ডল, কবিরাজ মানবেন্দ্র সরকার, প্রবীণ কৃষক হরিপদ মন্ডল, ও বারসিক আঞ্চলিক সমন্বয়কারি বিমল রায়। এছাড়াও কৈতরা, বাইতরা, বানিয়াল গ্রামের শতাধিক নারী পুরুষ ও শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ‘স্বাধীনতা মানুষের জন্মগত অধিকার। কিন্তু পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী তা মানতে নারাজ। রক্তের বিনিময়ে আমরা আমাদের স্বাধীনতা পেয়েছি। স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলার কৃষক কৃষাণি সামনে থেকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। কৃষক কৃষাণিদের স্বাধীনতা দিবস পালন নতুন প্রজন্মকে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উদ্ভুদ্ধ করে সুস্থ, সুন্দর জাতি গঠনে ভূমিকা রাখবে। কাজেই স্বাধীনতার চেতনা আমাদের ধরে রাখতে হবে। স্বাধীনতার চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে বাঙালির ইতিহাস, সংষ্কৃতির চর্চা বৃদ্ধি করতে হবে। নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার ইতিহাস জানানো আমাদের দায়িত্ব।’

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: