সাম্প্রতিক পোস্ট

গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষে মানিকগঞ্জে কর্মশালা অনুষ্ঠিত

মানিকগঞ্জ থেকে মো.নজরুল ইসলাম

‘গ্রামীণ নারীই কোভিডসহ সকল ধরনের দুর্যোগে সহনশীলতা বির্নিমাণ করতে পারে’-এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারাবিশ্বে সরকারি বেসরকারিভাবে যথাযথ মর্যাদায় পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস। এ উপলক্ষে মানিকগঞ্জ সিংগাইর অঞ্চলের আলোর দিশারি কিশোরী ক্লাব ও আজিমপুর নারী উন্নয়ন সমিতির যৌথ আয়োজনে এবং বারসিক’র সহযোগিতায় গতকাল গ্রামীণ নারী দিবসে নারীদের করোনাকালীন অভিজ্ঞতা নিয়ে গল্পের আসর ও কিশোরীদের বয়োঃসন্ধিকালীন সমস্যা ও স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি মোকাবেলায় কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


গল্পের আসর এবং কর্মশালায় আলেয়া বেগম ও স্বর্ণা আক্তারের সভাপতিত্বে কর্মশালায় সহায়কের ভূমিকা পালন করেন সিংগাইর উপজেলা পরিবার পরিকল্পপনা অধিদফতরের পরিবার পরিকল্পনা সহকারি জেসমিন সুলতানা এবং গল্পের আাসরে কোভিড মোকাবেলাসহ নারীর জীবনের বয়োঃসন্ধিকালীন সমস্যা মোকাবেলা বিষয়ক গল্প বলেন রাবেয়া আক্তার, গুলবাহার বেগম, রুবিনা আক্তার প্রমুখ। এছাড়াও উন্মুক্ত আলোচনায় কিশোরীদের মধ্যে অংশগ্রহণ করে সোনিয়া আক্তার, বর্ষা আক্তার, অন্তরা আক্তার, নাছরিন আক্তার,বারসিক প্রকল্প সহায়ক আছিয়া আক্তার প্রমুখ।


অনুষ্ঠানে আলোচকরা বলেন, ‘কোভিড বা করোনার নাম আমরা এই বছর প্রথমবার জীবনে শুনলাম। প্রথমাবস্থায় যতটা শারীরিকের চেয়ে মানসিক দুশ্চিন্তায় ছিলাম। এখন অত চিন্তা ও ভয় লাগে না। ঠান্ডা সর্দি কাঁশি থেকে যক্ষা ও নিউমোনিয়া হয়। এই রোগ আগেও ছিলো। তবে এর থেকে সচেতনতা থাকা খুবই জরুরি।’

তারা আরও বলেন, মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। যত্রতত্র এন্টিবায়েটিকের ব্যবহার ও রাসায়নিক বিষ, কীটনাশক ব্যবহারে মানুষের জীবনিশক্তি দূর্বল হয়ে পড়ছে। কিশোরীরা আরো দুর্বল। অনিয়মিত জীবনযাপন, প্রযুক্তি আসক্তি, সময়মত না খাওয়াসহ নানা কারণে নিয়মিত মাসিক হচ্ছে না কিশোরীদের। এটিই সাধারণত বয়োঃসন্ধিকালীন সমস্যা। এই সমস্যা মোকবেলা করতে বাড়িতে বয়স্ক নারীদের সাথে খোলামেলা কথা বলতে হবে।’

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: