সাম্প্রতিক পোস্ট

স্বাস্থ্য দিবসে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার দাবি

মানিকগঞ্জ থেকে রাশেদা আক্তার
‘Our Planet, Our Health’- ‘সুরক্ষিত বিশ্ব, নিশ্চিত স্বাস্থ্য’-এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে আজ (৭ এপ্রিল) বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে র‌্যালি, মানববন্ধন, আলোচনা সভা ও স্বাস্থ্যক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্বাস্থ্যক্যাম্পের মধ্যে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি, ডায়াবেটিকস ও উচ্চ রক্তচাপ পরীক্ষার আয়োজন করা হয়। মানিকগঞ্জ জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম ও বাংলাদেশ হেলথ ওয়াচ এবং বারসিক’র সহযোগিতায় মানিকগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন এ কর্মসূচি আয়োজন করে।

সকাল ১০ টায় জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালি শুরু করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতাল হয়ে বাস স্ট্যান্ড মোড় ঘুরে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। এরপর জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম মানিকগঞ্জ’র সভাপতি ডা: পংকজ কুমার মজুমদার এর সভাপতিত্বে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তারা কমিউনিটি ক্লিনিকের ঔষধের বরাদ্দ বাড়াতে হবে, জাতীয় বাজেটে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ বাড়াতে হবে, জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে আবাসন ব্যবস্থা বাড়াতে হবে ইত্যাদি দাবি তুলে ধরেন ।


মানববন্ধন শেষে জেলা সিভিল সার্জনের সম্মেলন কক্ষে জেলা সিভিল সার্জন অফিসার ডাঃ মোয়াজ্জেম আলী খান চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় জেলা সিভিল সার্জন অফিসার ডাঃ মোয়াজ্জেম আলী খান চৌধুরী বলেন, ‘স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দ্বারগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য সরকার আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। বারসিক যে কাজ করছে তা অবশ্যই প্রশংসনীয়। তবে তাদের লক্ষ্য রাখতে হবে যে সাধারণ জনগণ যাতে তাদের স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতন থাকে। তাহলে তাদের উদ্যোগ সফলতা লাভ করবে। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান যৌথ উদ্যোগের ফলে ভবিষ্যতে এই সমস্যাগুলো মোকাবিলা করে দেশের স্বাস্থ্যখাতকে আরো শক্তিশালী করা সম্ভব হবে। ”


অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মুহাঃ রায়হান বলেন, ‘করোনাকালীন সময়ে আমরা দেখেছি স্বাস্থ্য বিভাগের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ কতটা পরিশ্রম করেছেন। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলেই বাংলাদেশ গরিব দেশ, ঘন বসতির দেশ হওয়া সত্ত্বেও করোনা বাংলাদেশে মহামারী আকার ধারণ করেনি। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে আপনাদের পাশে আছি, পাশে থাকবো।’


জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামের সহ সভাপতি শ্রীমতি লক্ষ্মী চ্যাটার্জী বলেন, ‘স্বাস্থ্যই হলো সকল সুখের মূল’-আমরা ছোট বেলায় বইয়ে পড়েছি। কিন্তু তখন এর মর্মার্থ বুঝতে পারিনি। এখন বুঝি শুধু স্বাস্থ্য থাকলেই সুস্থ হয় না। এখন মানুষ জানে অতিরিক্ত স্বাস্থ্যও অসুখের কারণ। মানুষের মধ্যে এই সচেতনতা তৈরি হয়েছে। সবাইকে সুস্থ থাকার জন্য চেষ্টা করতে হবে। সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে প্রতিটি স্বাস্থ্যসেবা সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার জন্য।”


আলোচনা শেষে দিনব্যাপি ডায়বেটিকস পরীক্ষা, উচ্চ রক্তচাপ মাপা ও স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বারসিক’র ফিল্ড ফেসিলিটেটর রুমা আক্তারের স্বেচ্ছায় রক্তদানের মধ্য দিয়ে রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জেলা সিভিল সার্জন অফিসার, মানিকগঞ্জ।


এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্যে বারসিক’র আঞ্চলিক সমন্বয়কারী ও জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম মানিকগঞ্জ’র সাধারণ সম্পাদক বিমল চন্দ্র রায়, ‘বারসিক হেলথ ওয়াচ এর সহযোগিতায় জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরাম গঠনের মধ্য দিয়ে স্বাস্থ্য বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছে। প্রান্তিক মানুষ যাতে সরকারি স্বাস্থ্যসেবা পায় সেক্ষেত্রে যেখানে যেখানে অসামঞ্জস্য আছে বলে মনে হচ্ছে সেসব ক্ষেত্রে উদ্যোগ নেওয়া, সরকারের কাজে সহযোগিতা করা এবং জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যেই আমরা মূলত: কাজ করে থাকি।’

happy wheels 2

Comments

%d bloggers like this: